নিবন্ধনেই মিলবে টিকা, গণটিকাদান আপাতত বন্ধ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

11
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘এই মুহূর্তে আমরা আর গণটিকা কার্যক্রম করছি না। কারণ, গণটিকাদান কার্যক্রম পরিচালনার মতো সেই পরিমাণ টিকা সরকারের হাতে নেই। আগামীতে গণটিকা কথাটাই থাকবে না আর। লম্বা লম্বা লাইন যাতে না হয়, হুড়াহুড়ি করে টিকা নেওয়ার প্রয়োজন নেই। টিকা যে পরিমাণ হাতে থাকবে সেভাবে টিকা দেওয়া হবে।’

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘দ্বিতীয় ডোজ টিকার সময়সীমা ১৫ দিন করার চিন্তা করছে সরকার। এটা নিয়ে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গে আলোচনা চলছে।’

আজ সোমবার সচিবালয়ে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের এ কথা বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

জাহিদ মালেক বলেন, ‘করোনার সংক্রমণ কমে আসছে, মৃত্যুও কমছে। টিকাদান এখন শহরে বেশি চলছে। সেপ্টেম্বরের মধ্যে ফাইজারের ৬০ লাখ টিকা পাওয়া যাবে। চীন থেকে আরও ১০ লাখ টিকা পাওয়া যাবে।’

সাড়ে ১০ কোটি সিনোফার্মার টিকা ডব্লিউএইচও এর মাধ্যমে কিনতে হবে। সেটা অর্ডার দেওয়া হয়েছে। এ ছাড়া চীনের সঙ্গে চুক্তি হয়ে আছে সাড়ে ছয় কোটির। ডিসেম্বরের মধ্যে ১৬ কোটি টিকা পাওয়া যাবে। আশা করা হচ্ছে, জানুয়ারি মাসের মধ্যে সাত থেকে আট কোটি মানুষকে টিকা দেওয়া সম্ভব হবে।