৩২০০ কোটি টাকার বিশেষ ৫টি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর

25
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
করোনা ভাইরাসের ভয়াবহ বিস্তার রোধে দেশজুড়ে চলমান লকডাউনে আর্থিকভাবে ক্ষতিগ্রস্তদের সহযোগিতার জন্য তিন হাজার ২০০ কোটি টাকার বিশেষ পাঁচটি প্রণোদনা প্যাকেজ ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আজ মঙ্গলবার প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা দেওয়া হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, করোনা ভাইরাসের চলমান সংক্রমণের কারণে আরোপিত বিধিনিষেধের ফলে ক্ষতিগ্রস্ত নিম্নআয়ের মানুষের সহায়তায় তিন হাজার ২০০ কোটি টাকার পাঁচটি নতুন প্রণোদনা প্যাকেজের ঘোষণা দিয়েছেন সরকারপ্রধান শেখ হাসিনা।

প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ১৪ লাখ ৩৭ হাজার ৩৮৯ জন দিনমজুর, দুই লাখ ৩৫ হাজার ৩৩ জন পরিবহণ শ্রমিক, ৫০ হাজার ৪৪৬ জন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী এবং এক হাজার ৬০৩ জন নৌপরিবহণ শ্রমিককে জনপ্রতি নগদ দুই হাজার ৫০০ টাকা করে আর্থিক সহায়তা দেওয়া হবে। মোট ১৭ লাখ ২৪ হাজার ৪৭০ জন উপকারভোগীর জন্য বরাদ্দ ৪৫৯ কোটি টাকা।

শহর এলাকায় নিম্ন আয়ের জনসাধারণের সহায়তার লক্ষ্যে আগামী ২৫ জুলাই থেকে ৭ আগস্ট পর্যন্ত ১৪ দিন সারা দেশে ৮১৩টি কেন্দ্রে বিশেষ ওএমএস কার্যক্রম পরিচালনা করার জন্য ১৫০ কোটি টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। এই বরাদ্দের আওতায় রয়েছে ২০ হাজার মেট্রিক টন চাল ও ১৪ হাজার মেট্রিক টন আটা।

৩৩৩ ফোন নম্বরে জনসাধারণের অনুরোধের পরিপ্রেক্ষিতে খাদ্য সহায়তা প্রদানের জন্য জেলা প্রশাসকদের অনুকূলে বিশেষ বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে ১০০ কোটি টাকা।

গ্রামীণ এলাকায় অর্থায়নের জন্য পল্লী সঞ্চয় ব্যাংক, কর্মসংস্থান ব্যাংক ও পিকেএসএফের মাধ্যমে চার শতাংশ সুদে ঋণ প্রদানের লক্ষ্যে ইতোপূর্বে তিন হাজার ২০০ কোটি টাকা অতিরিক্ত বরাদ্দ প্রদান করা হয়েছে। ঋণ প্রদানের জন্য এক হাজার ৫০০ কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

পর্যটন খাতের হোটেল, মোটেল, থিম পার্কের জন্য কর্মচারীদের বেতন-ভাতা পরিশোধের লক্ষ্যে ব্যাংক ব্যবস্থার মাধ্যমে চার শতাংশ সুদে ওয়ার্কিং ক্যাপিটাল ঋণ সহায়তা প্রদানের জন্য এক হাজার কোটি টাকা বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।

পাঁচটি প্রণোদনা প্যাকেজের আওতায় ক্ষতিগ্রস্ত নিম্ন আয়ের মানুষের সহায়তায় তিন হাজার ২০০ কোটি টাকা ব্যয় করা হবে।