অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২৫ লাখ করোনা টিকা শিগগিরই আসছে: পররাষ্ট্রমন্ত্রী

29
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
সপ্তাহ খানেকের মধ্যে দেশে আসবে অ্যাস্ট্রাজেনেকার ২৫ লাখ ডোজ করোনা ভ্যাকসিন। কোভ্যাক্সের আওতায় জাপান থেকে আসবে এই টিকা।

বুধবার (৭ জুলাই) পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে এক ব্রিফিংয়ে এমনটা জানিয়েছে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে এম আবদুল মোমেন।

তিনি জানান, কোভ্যাক্সের মাধ্যমে জাপান থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার এই ২৫ লাখ ডোজ টিকা সপ্তাহ খানেকের মধ্যেই দেশে আসবে।

এর আগে শনিবার (৩ জুলাই) দেশে চীনের সিনোফার্ম থেকে কেনা ১০ লাখ ডোজ টিকা দেশে পৌঁছায় আর শুক্রবার (২ জুলাই) রাতে পৌঁছায় একই সিনোফার্মের ২০ লাখ ডোজ টিকা।

এদিকে কোভ্যাক্সের আওতায় শুক্রবার (২ জুলাই) রাতে যুক্তরাষ্ট্রের মডার্নার মোট ২৫ লাখ ডোজ টিকার ১২ লাখ এবং শনিবার (৩ জুলাই) বাকি ১৩ লাখ ডোজ টিকা দেশে পৌঁছায়।
পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, প্রতি মাসে চীন থেকে সিনোফার্মে ৫০ লাখ ডোজ করে টিকা আসবে। এভাবে তিনমাসে মোট দেড় কোটি সিনোফার্মের কেনা টিকা দেশে আসবে। চলতি মাসের শেষের দিকে ইউরোপীয় ইউনিয়ন থেকেও আসবে দশ লাখ অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকা।

তবে বেসরকারি খাত আগ্রহ দেখালেও জননিরাপত্তার কথা চিন্তা করে আপাতত সরকারিভাবেই করোনার টিকা আমদানি করা হবে বলে জানান পররাষ্ট্রমন্ত্রী।

সুরক্ষা অ্যাপ ও ওয়েবসাইটে ২ মাস পর আবারও উন্মুক্ত হলো গণহারে কোভিড টিকা নিবন্ধনের সুযোগ। নিবন্ধন করা যাবে ৩৫ ঊর্ধ্ব নাগরিকসহ ২২ ক্যাটাগরিতে। বুধবার (৭ জুলাই) থেকে অনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়েছে এই গণটিকা নিবন্ধন কার্যক্রম।

এর আগে মঙ্গলবার (০৫ জুলাই) থেকে প্রবাসীকর্মীদের করোনা ভ্যাকসিন দেওয়ার জন্য বিশেষ রেজিস্ট্রেশন চালু করা হয়। সোমবার (০৫ জুলাই) প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রী ইমরান আহমেদ এক ভার্চুয়াল কনফারেন্সের মাধ্যমে সুরক্ষা ও প্রবাসী অ্যাপের মাধ্যমে এ বিশেষ রেজিস্ট্রেশন কার্যক্রমের উদ্বোধন করেন।

তবে আগামী সপ্তাহ থেকে শুরু হতে যাওয়া গণটিকাদান কর্মসূচি সারা দেশের সিটি এলাকায় প্রদান করা হবে মডার্নার টিকা এবং উপজেলা পর্যায়ে প্রদান করা হবে সিনোফার্মের টিকা। সোমবার (৫ জুলাই) এমন তথ্য জানান স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (পরিকল্পনা ও উন্নয়ন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।