১১১ দিন পর নিম্নমুখী ভারতে করোনার সংক্রমণ ও মৃত্যু

12
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন রিপোর্ট:
ভারতে গত ১১১ দিন পর করোনার দৈনিক সংক্রমণ ৩৫ হাজারের নিচে নেমেছে। সেই সঙ্গে গত ২৪ ঘণ্টায় কোভিডে মৃত্যুর সংখ্যাও কমে হয়েছে ৫৫৩। এছাড়া সংক্রমণের দৈনিক হারও নিম্নমুখী হয়েছে।

মঙ্গলবার (৬ জুলাই) সকালে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে আনন্দবাজার।

নতুন সংক্রমণের মতো দৈনিক মৃত্যুর সংখ্যাও কমেছে অনেকটাই। সোমবার দেশটিতে ৭৭৩ জনের কোভিডে মৃত্যু হয়েছিল। মঙ্গলবারের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, ওই সময়ের মধ্যে মহারাষ্ট্রে সবচেয়ে বেশি ১০৬ জনের মৃত্যু হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে ৩৪ হাজার ৭০৩ জন নতুন করে কোভিডে আক্রান্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট সংক্রমণের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে তিন কোটির ছয় লাখেরও বেশি। মোট মৃত্যু সংখ্যা দাঁড়িয়েছে চার কোটি তিন হাজারেরও বেশি। আর দেশটিতে সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৪ লাখ ৬৪ হাজার ৩৫৭।

এখন পর্যন্ত ভারতে দেওয়া হয়েছে সাড়ে ৩৫ কোটিরও বেশি ডোজ। দ্বিতীয় ঢেউ নিম্নমুখী হলেও কয়েক সপ্তাহের মধ্যে করোনার নতুন রূপ ডেল্টা প্লাস দেশটিতে সম্ভাব্য তৃতীয় ঢেউ ভয়াবহ করে তুলতে পারে।

চলতি বছরের মার্চের মাঝামাঝিতে একদিনে শনাক্ত ছিল প্রায় ২০ হাজার রোগী। এরপর লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ে সংক্রমণ। গত মে মাসে দেশটিতে একদিনে সর্বোচ্চ রোগী শনাক্তের রেকর্ড করা হয় ৪ লাখ ১৪ হাজারেরও বেশি।

ভারতের দখলে বিশ্বের কোনো দেশে একদিনে সর্বোচ্চসংখ্যক করোনা রোগী শনাক্তের রেকর্ড। গত ২২ এপ্রিলের আগ পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রের দখলে ছিল এই রেকর্ড।

ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, যুক্তরাষ্ট্রে বিশ্বে সবচেয়ে বেশি করোনা শনাক্ত হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্রের পর ভারত এরপর ব্রাজিল। আর মৃত্যুর দিক দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান শীর্ষে। ব্রাজিল দ্বিতীয় আর ভারত তৃতীয় অবস্থানে রয়েছে।