করোনা রোগীর সংখ্যা কুড়িগ্রামে প্রতিনিয়ত বাড়ছেই

11
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, কুড়িগ্রাম:
দেশের উত্তরের সীমান্তবর্তী জেলা কুড়িগ্রামে গত দুই সপ্তাহ ধরে ক্রমেই বাড়ছে করোনা রোগীর সংখ্যা। জেলায় গত দুই মাসের ব্যবধানে শনিবার (১২ জুন) সর্বোচ্চ সংখ্যক করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে।

এদিন কুড়িগ্রামে ৩২ জনের নমুনা পরীক্ষায় ১৮ জনের দেহে মিলেছে কোভিড-১৯ ভাইরাসের উপস্থিতি। যা গত দুই মাসের মধ্যে সর্বোচ্চ শনাক্ত বলে জানিয়েছে জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ। সিভিল সার্জন ডা. মো. হাবিবুর রহমান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

জেলা সদরে ও সীমান্তবর্তী উপজেলাগুলোতে শনাক্তের এ হার বেশি দেখা যাচ্ছে। এর আগে গত ১ জুন জেলায় সর্বোচ্চ ১১ জনের দেহে করোনা সনাক্ত করা হয়। এরপর গত ৫ জুন ২০ জনের নমুনায় ৯ জন, ৯ জুন ৩১ জনের নমুনায় ১০ জন করোনা পজেটিভ শনাক্ত হয়।

স্বাস্থ্য বিভাগের তথ্যমতে, কুড়িগ্রামে এখন পর্যন্ত মোট ১ হাজার ৩১৭ জন করোনা পজিটিভ শনাক্ত হয়েছেন। এর মধ্যে ২৫ জন মারা গেছেন এবং ১ হাজার ২০৮ জন সুস্থ হয়েছেন। জেলায় মোট ৩৩ হাজার ৭৫৩ জনকে দুই ডোজ টিকা দেওয়া হয়েছে।

সার্বিকভাবে করোনা সংক্রমণ পরিস্থিতি এ পর্যন্ত নিয়ন্ত্রণে রয়েছে জানিয়ে জেলা সিভিল সার্জন ডা. হাবিবুর রহমান বলেন, ‘এটা আমাদের জন্য অ্যালার্মিং। দেশের সীমান্তবর্তী অন্য জেলাগুলোতে যেভাবে কোভিড রোগী বাড়ছে, সে তুলনায় কুড়িগ্রামে শনাক্তের হার অনেকটা কমই ছিলো। কিন্তু গত কয়েকদিন থেকে কুড়িগ্রামে প্রতিনিয়ত করোনা সনাক্ত হচ্ছে এবং শনিবার যেভাবে ১৮ জনের দেহে কোভিড শনাক্ত হয়েছে তা আমাদের জন্য ভিন্ন বার্তা দিচ্ছে।

তবে সংক্রমিতদের মধ্যে কারও শরীরে ভারতীয় ভ্যারিয়েন্ট রয়েছে কি না তা নিশ্চিত করে বলতে পারেননি তিনি।