ঢাকা ফাঁকা

16
Print Friendly, PDF & Email

স্পেশাল করেসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
রাত পোহালেই ঈদুল আজহা। এবার ঈদের আগের দু’দিন শুক্র ও শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি থাকায় গত বৃহস্পতিবার থেকেই ঢাকা ছাড়তে শুরু করে অনেকে। তাই আগেভাগেই ফাঁকা হয়ে গেছে রাজধানী ঢাকা।

রোববার (১১ আগস্ট) রাজধানী ঘুরে দেখা গেছে, প্রধান সড়কগুলোতে যানবাহনের চাপ নেই। ছিল না চিরচেনা যানজট, কর্মব্যস্ততাও। রাজধানীর সবচেয়ে কর্মব্যস্ত বাণিজ্যিক এলাকা মতিঝিলের রূপও বদলে গেছে। এদিন দু’একটি বাসের যাতায়াত ছাড়া পুরো মতিঝিল ফাঁকা।

এলাকায় দায়িত্বরত ট্রাফিক পুলিশ কর্মকর্তা জানিয়েছেন, বিকালের মধ্যে এলাকা আরও ফাঁকা হয়ে যাবে।

রাস্তা-ঘাটে মানুষ কম থাকায় রাজধানীর বিভিন্ন সড়কে চলা বাসের সংখ্যাও ছিল কম। মিরপুর থেকে মতিঝিল, গাজীপুর থেকে সায়েদাবাদ রুটে চলাচল করা বাসের সংখ্যাও ছিল কম। তবে বাসগুলো অতিরিক্ত ভাড়া নিচ্ছে বলেই অভিযোগ যাত্রীদের। তবে রাস্তা ফাঁকা থাকায় দ্রুত যাতায়াত করতে পারায় স্বস্তি দেখা গেছে যাত্রীদের।

বাস চালকরা জানান, ঈদের সময়ে ১০ টাকা ভাড়া বেশি নেওয়া হয়, বকশিশ হিসেবে। তাছাড়া ঢাকাতে এখন যাত্রীর সংখ্যাও কম।

তবে ভিড় দেখা গেছে কোরবানির পশুর হাটের এলাকাগুলোতে। শপিং মলগুলোতে কমবেশি কেনাকাটায় ব্যস্ত সবাই। ভিড় ছিলো বাস টার্মিনাল, লঞ্চ এবং রেল স্টেশনে।

বলা হয় ঈদের সময়ে প্রায় কোটি মানুষ ঢাকা ছাড়ে। তবে বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরী জানান, এবার ডেঙ্গু আতংকে মানুষ যাতায়াত কম করছে। তাই তুলনামূলক কম মানুষ ঢাকা ছেড়েছে।