দেশে লকডাউনের শুরুতেই ৯৬ জনের মৃত্যুর রেকর্ড, নতুন আক্রান্ত ৫১৮৫

18
Print Friendly, PDF & Email

স্পেশাল করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
দেশে করোনা শনাক্তের ৪০৩তম দিনে (সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায়) রাজধানীসহ সারাদেশে মহামারি করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে আবারও রেকর্ড সংখ্যক সর্বোচ্চ ৯৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ ৫৯ জন ও নারী ৩৭ জন। ৯৬ জনের মধ্যে ৯৪ জন হাসপাতালে ও বাসায় দুইজনের মৃত্যু হয়। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল নয় হাজার ৯৮৭ জনে।

এ সময়ে দেশের সরকারি ও বেসরকারি ২৫৫টি ল্যাবরেটরি ২৪ হাজার ৯৯৫টি নমুনা সংগ্রহ ও ২৪ হাজার ৮২৫টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষায় পাঁচ হাজার ১৮৫ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। এ নিয়ে মোট শনাক্তকৃত রোগীর সংখ্যা দাঁড়িয়েছে সাত লাখ ৩ হাজার ১৭০ জন।

বুধবার (১৪ এপ্রিল) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত পরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. মীরজাদি সেব্রিনা ফ্লোরা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা পরীক্ষায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৯ শতাংশ। গত বছরের ৮ মার্চ প্রথম রোগী শনাক্ত হওয়ার পর থেকে এ পর্যন্ত শনাক্তের মোট হার ১৩ দশমিক ৮০ শতাংশ।

একই সময়ে সুস্থ হয়ে উঠেছেন পাঁচ হাজার ৩৩৩ জন। এ নিয়ে দেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার পর চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে ওঠা রোগীর সংখ্যা পাঁচ লাখ ৯১ হাজার ২৯৯ জন। ২৪ ঘণ্টায় সুস্থতার হার ৮৪ দশমিক শূন্য ৯ শতাংশ।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় মৃত ৯৬ জনের মধ্যে বিশোর্ধ্ব দুইজন, ত্রিশোর্ধ্ব দুইজন, চল্লিশোর্ধ্ব ১২ জন, পঞ্চাশোর্ধ্ব ২৫ জন ও ষাটোর্ধ্ব ৫৫ জন রয়েছেন।

৯৬ জনের মধ্যে ঢাকা বিভাগে ৬৮ জন, চট্টগ্রামে ১২ জন, খুলনায় পাঁচজন, বরিশালে পাঁচজন, সিলেটে তিনজন ও ময়মনসিংহ বিভাগে তিনজনের মৃত্যু হয়।