আ. লীগের তথ্য ও গবেষণা উপ-কমিটিতে নির্যাতিত ছাত্রনেতা আবু তাহের রতন

87
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক উপ কমিটি সম্প্রতি অনুমোদন করা হয়েছে। রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক উপাচার্য ও যুক্তরাজ্যে বাংলাদেশের প্রাক্তন হাই কমিশনার ড. সাইদুর রহমান খানকে চেয়ারম্যান এবং আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক এবং আইন ও জ্বালানি বিশেষজ্ঞ ড. সেলিম মাহমুদ কে সদস্য সচিব করে এ কমিটি গঠন করা হয়।

তথ্য সংগ্রহ, সংরক্ষণ, বিশ্লেষণ এবং গবেষণা ও প্রশিক্ষণসহ নানামুখী কার্যক্রমের মাধ্যমে দলের বিভিন্ন পর্যায়ে দক্ষতা বৃদ্ধির কাজ করে থাকে এ উপ-কমিটি।

কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক এ উপ-কমিটির সদস্য মনোনীত হয়েছেন, পুরান ঢাকার লালবাগ থানা ছাত্রলীগের (১৯৯১) সাবেক সাধারণ সম্পাদক এবং শেখ বােরহানুদ্দিন কলেজ ছাত্র সংসদের (১৯৯১ মেয়াদি) সাবেক এজিএস মো: আবু তাহের রতন।

১৮ ফেব্রুয়ারি এ কমিটি ঘোষণা করা হয়। এর আগে আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের তথ্য ও গবেষণা বিষয়ক উপ-কমিটির অনুমোদন দেন। জনপ্রিয় ছাত্রনেতা আবু তাহের রতন নব্বইয়ের দশকের শুরুর দিকে শেখ বােরহানুদ্দিন কলেজের ছাত্র থাকাকালীন (১৯৮৯) কলেজ শাখার যুগ্ম-আহবায়ক হিসেবে বাংলাদেশ ছাত্রলীগের রাজনীতির সঙ্গে সক্রিয়ভাবে জড়িয়ে পড়েন।

পরবর্তীতে কলেজ ছাত্র সংসদ নির্বাচনে ছাত্রলীগের মনােনীত এজিএস প্রার্থী হিসেবে প্রতিদ্বন্দিতা করেন নির্যাতিত ও কারাবরনকারী ছাত্রনেতা আবু তাহের রতন। এরপর ১৯৯২ সালে শেখ বােরহানুদ্দিন কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন। ১৯৯৩ সালে পুরান ঢাকার ঐতিহ্যবাহী লালবাগ থানা শাখা ছাত্রলীগের সহকারী সম্পাদক হন তিনি। ১৯৯৭ সালে একই থানা শাখা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত হন রতন।

১৯৯৫ সনের খালেদা জিয়ার সরকার বিরােধী আন্দোলনে জনপ্রিয় ছাত্রলীগ নেতা হিসেবে সার্বক্ষণিক ও সক্রিয় অংশ গ্রহন করেন আবু তাহের রতন। সে বছরের ১১ নভেম্বর জিপিও এলাকায় বাংলাদেশের ছাত্রলীগের মিছিল থেকে গ্রেফতার হন এবং দীর্ঘ তিন মাস ১ দিন কারাবরণ করে ১৯৯৬ সালের ১২ ফেব্রুয়ারী জামিনে মুক্তিপান রতন।

এছাড়া, একাধিকবার বিএনপি-জামায়াতের রাজনৈতিক হয়রানি ও নির্যাতনের স্বীকার হয়েছেন তিনি। ছাত্রদলের সন্ত্রাসীরা তার ওপর নির্মম নির্যাতনের ষ্টিম রোলার চালিয়েছি। একাধিকবার মিথ্যা ও সাজানো মামলায় পুলিশী হয়রানিরও স্বীকার হয়েছেন আবু তাহের রতন।

২০১৮ সালের ৩০ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের ’জাতীয় সংসদ নির্বাচন পরিচালনা কমিটি-২০১৮’ এর টিম সদস্য হিসেবে নিষ্ঠার সঙ্গে অর্পিত দ্বায়িত্ব পালন করেন তিনি।

ছাত্রলীগের দুঃসময়ের সক্রিয়, নিষ্ঠাবান কর্মী ও বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ রাজনৈতিক আন্দোলনে মাঠ কাঁপানো সাবেক ছাত্রনেতা আবু তাহের রতনের এই অর্জনে বিভিন্ন মহল থেকে তাকে আন্তরিক অভিনন্দন, শুভেচ্ছা ও শুভ কামনা জানিয়ে তার উত্তরোউত্তর সাফল্য কামনা করা হয়েছে।

মো: আবু তাহের রতন বরিশালের হিজলা উপজেলার কালিকাপুর গ্রামের আবুল হােসেন মােল্লা এবং শরীফা বেগমের পুত্র।