ঠাকুরগাঁও পৌর নির্বাচনে ভয়ভীতি-হামলার প্রতিবাদে বিএনপি’র সংবাদ সম্মেলন

43
Print Friendly, PDF & Email

জুনাইদ কবির, ঠাকুরগাঁও:
আসন্ন ঠাকুরগাঁও পৌরসভা নির্বাচন ২০২১ চলাকালীন সময়ে সরকার দলীয় প্রার্থী ও নেতা কর্মীদের আচরন বিধি ভঙ্গ, উদ্ধত্যপূূর্ণ আচরন ও ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে না যেতে ভয়ভীতি প্রদর্শনসহ মামলা হামলা ও গ্রেফতারের প্রতিবাদে সংবাদ সম্মেলন করেছে জেলা বিএনপি।

বুধবার (১০ ফেব্রুয়ারি) দুপুুরে ঠাকুরগাঁও জেলা বিএনপি কার্যালয়ে এ সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক ফয়সাল আমিন স্বাক্ষরিত প্রেস রিলিজে বলেন, নির্বাচনের পূর্বেই নৌকা প্রতীকের কর্মী, সমর্থক ও আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা আমাদের নির্বাচনী প্রচারণায় বাধা প্রদান, পোষ্টার ছেঁড়া, কর্মীদের মারপিট, ভোটারদের ভোট কেন্দ্রে না যেতে প্রকাশ্যে হ্যান্ড মাইকে হুমকি প্রদান তথা নির্বাচনী কার্যক্রম থেকে কর্মীদের বিরত রেখে পৌরসভা জুড়ে ভীতিকর ও ত্রাসের রাজত্ব কায়েম করে নির্বাচনের ফলাফল তাদের পক্ষে নেয়ার চেষ্টা করছে। রির্টানিং অফিসার বরাবরে অভিযোগ করলেও কোন প্রতিকার মিলেনি। উল্টো পরিকল্পিতভাবে ঘটনা সাজিয়ে আমাদের নেতাকর্মী ও সমর্থকদের নামে মিথ্যা মামলা দিয়ে গ্রেফতার ও হয়রানী করা হচ্ছে।

এছাড়াও এ সময় জেলা বিএনপি’র সভাপতি তৈমুর রহমান বলেন, কিছু মানুষ বলে বিএনপি ভোট বর্জনের সংস্কৃতি চালু করেছে। আর আমরা বলছি ভোট বর্জন করতে আমরা বাধ্য হচ্ছি। আমরা চেষ্টা করবো ঠাকুরগাঁওয়ের সংস্কৃতি যাতে নষ্ট না হয় ।
অন্যদিকে, বিএনপি’র মনোনিত মেয়র প্রার্থী শরিফুল ইসলাম শরিফ বলেন, আমরা আগে দেখবো ভোটের পরিবেশ থাকতেছে কি না। তারপর আমরা দলীয় সিদ্ধান্ত নিব ভোট বর্জন করবো, না করবো না।