মাদারীপুরে মধুকোষের মোড়ক উন্মোচন করলেন জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন

13
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, মাদারীপুর:
“জেলা প্রশাসনের পৃষ্ঠপোষকতা, খাঁটি মধুর নিশ্চয়তা”- এই স্লোগানে মাদারীপুরে খাঁটি মধু উৎপাদনের লক্ষ্যে মুধকোষের মোড়ক উন্মোচন করা হয়েছে। মাদারীপুরের জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন রবিবার সকালে সদর উপজেলার দুধখালী ইউনিয়নের চন্ডিবর্দি বড় বাড়ির ঘাট এলাকায় জিসান-জিহাত-বরকত এর মৌ খামারে এই মধুকোষের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন।

এ সময় জেলা প্রশাসক ড. রহিমা খাতুন বলেন, পবিত্র কুরআনে মধুর গুণাগুন সম্পর্কে বেশ ভালো করেই উল্লেখ আছে। মধু হাজার রোগের মহা ঔষুধ। আমি জেনেছি মাদারীপুরে নাকি মধুর চাষ করা হয়। তাই মাদারীপুরের খাঁটি মধু যাতে সারা বাংলাদেশে সরবরাহ করা যায় সে জন্য আমরা জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় নতুন ব্র্যান্ডিং করে দিচ্ছি। তিনি আরো বলেন, আমরা ইতিমধ্যে বিএসটিআই’র অনুমোদন করে দিয়েছি। এছাড়া মধু চাষীদের সুবিধার্থে বি ফুড, বক্স শীট, অনলাইন এ্যাপসসহ নান সুযোগ সুবিধা করে দিবো। আজ আমি এই মধুকোষের শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করলাম।

স্থানীয় উদ্যোক্তা হানি বাংলাদেশের স্বত্ত্বাধিকারী মো: আনোয়ার সরদার জানান, মাদারীপুরে শতাধিক মৌমাছি খামার আছে। প্রতিটি খামারে প্রায় ১৫০-২০০টি মৌ বক্স আছে। এতে প্রতি বছর ১৫০ টন মধু উৎপাদন হয়। যা দেশের বিভিন্নস্থানে আমরা প্রক্রিয়াকরণ করে সরবরাহ করে থাকি। দেশের বিভিন্নস্থানের মৌ চাষি মাদারীপুরে এসে মৌ চাষ করে। কারণ এখানে পৌষ ও মাঘ মাষে ধনিয়া ও কালোজিরার চাষ হয়। আর এই ধনিয়া ও কালোজিরার মধু সবচেয়ে বেশি ভালো।

মধুকোষের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানের অন্যান্যের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক সার্বিক খায়রুল আলম সুমন, কৃষি সম্প্রসারণ অধিদপ্তরের উপ পরিচালক ড. মোহাম্মদ মোয়াজ্জেম হোসেন, মাদারীপুর শিল্প নগরী সম্প্রসারণ প্রকেল্পর প্রকল্প পরিচালক মো: ইউসুফ আলী মোল্লা, ইউপি চেয়ারম্যান মিজানুর রহমান হিরু, মৈত্রী মিডিয়া সেন্টারের সভাপতি মাহবুবর রহমান বাদল, মৌ চাষিসহ অনেকেই।