ফের নাভালনির সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড

10
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
রাশিয়ার বিরোধী দলীয় নেতা ও প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের কট্টর সমালোচক অ্যালেক্সেই নাভালনিকে সাড়ে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে মস্কোর একটি আদালত। তার বিরুদ্ধে সাজা স্থগিতের শর্ত লংঘনের অভিযোগ আনা হয়। খবর বিবিসি’র।

আগের দেওয়া অর্থ আত্মসাতের মামলায় স্থগিত দণ্ড চলাকালে নাভালনির নিয়মিত পুলিশের কাছে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল, যা তিনি লংঘন করেছেন বলে অভিযোগ করা হয়। এখন ওই স্থগিত দণ্ডই কারাদণ্ডে রূপান্তর করা হয়েছে।

এই মামলায় সাজা হওয়ার পর এক বছর গৃহবন্দি দশায় কাটিয়েছেন নাভালনি। রায় অনুযায়ী, ওই এক বছর মোট কারাদণ্ড থেকে বাদ যাবে। এই রায়ের বিরুদ্ধে আপিল করার ঘোষণা দিয়েছেন নাভালনির আইনজীবী।

অবশ্য আদালতে বক্তব্য দেওয়ার সময় প্রেসিডেন্ট পুতিনকে ‘বিষ প্রয়োগকারী’ আখ্যায়িত করেছেন নাভালনি। তার ওপর এই হামলার জন্য তাকে দায়ী করেছেন তিনি।

এদিকে রায় ঘোষণার পর তাৎক্ষণিক বিক্ষোভের ডাক দেন নাভালনির সমর্থকরা। আদালতের বাইরে জড়ো হওয়ার চেষ্টা করেন তারা। তবে পুরো এলাকায় দাঙ্গা পুলিশ মোতায়েন ছিল। এ সময় নাভালনির তিন শতাধিক সমর্থককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে পর্যবেক্ষকরা জানিয়েছেন।

রাশিয়ার বিরোধী দলীয় নেতার সাজা ঘোষণার কঠোর সমালোচনা করেছে আন্তর্জাতিক মহল। কাউন্সিল অব ইউরোপ এই রায়কে অগ্রহণযোগ্য আখ্যায়িত করেছে।

যুক্তরাজ্যের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডোমিনিক রাব একে ‘ন্যায়ভ্রষ্ট’ আখ্যায়িত করেছেন। জার্মানির পররাষ্ট্রমন্ত্রী হেইকো মাস বলেছেন, এই রায় জনগণের স্বাধীনতা ও আইনের শাসনের প্রতি আঘাত।

যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্রমন্ত্রী ব্লিনকেন অবিলম্বে নাভালনির নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন। ‘জনগণের অধিকার রক্ষায় ব্যর্থতার’ জন্য রাশিয়াকে জবাবদিহির আওতায় আনতে মিত্রদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে কাজ করার ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, গত আগস্টে নার্ভ এজেন্ট ‘নোভিচক’ দিয়ে হত্যাচেষ্টা থেকে বেঁচে যাওয়ার পর জার্মানিতে কয়েক মাসের চিকিৎসা শেষে গত ১৭ জানুয়ারি দেশে ফিরেন অ্যালেক্সেই নাভালনি। বিমানবন্দরে নামামাত্র তাকে গ্রেপ্তার করে রাশিয়ার পুলিশ।