ভারতে ভ্যাকসিন নেবার পরে আবারও মৃত্যু

16
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
ভ্যাকসিন নেওয়ার দু’ঘণ্টার মধ্যেই ভারতের গুজরাটের এক পরিচ্ছন্নতাকর্মীর মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে তার পরিবার। ৩০ বছর বয়সী ওই কর্মীর মৃতদেহ ইতোমধ্যেই ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। সেই রিপোর্ট এলেই মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে বলা যাবে বলে জানিয়েছেন কর্তৃপক্ষ। যদিও প্রাথমিকভাবে তাদের ধারণা, হার্ট অ্যাটাকের ফলেই মৃত্যু হয়েছে তার।

জিগনেশ সোলাঙ্কি নামের ওই পরিচ্ছন্নতাকর্মী ভদোদরার পৌরসভায় কাজ করতেন। রোববার (৩১ জানুয়ারি) সকালে তাকে ভ্যাকসিন দেওয়া হয়। এরপর তিনি বাড়ি ফিরে যান। কিন্তু ঘণ্টা দুয়েকের মধ্যেই জ্ঞান হারিয়ে অচেতন হয়ে পড়েন। দ্রুত তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে ডাক্তাররা মৃত বলে ঘোষণা করেন।

ঘটনার আকস্মিকতায় শোকে মুহ্যমান সোলাঙ্কির স্ত্রী দিব্যা। সংবাদমাধ্যমকে তিনি বলেন, ‘আমি জানতামই না উনি ভ্যাকসিন নিতে যাচ্ছেন। এই নিয়ে আমাদের কোনও কথাই হয়নি। পরে তিনি বাড়িতে ফিরে মেয়ের সঙ্গে খেলতে খেলতেই অজ্ঞান হয়ে মাটিতে পড়ে যান। আমাদের ধারণা, ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্যই এভাবে হঠাৎ মৃত্যু হল তার।’ 

এমন দাবি অবশ্য অস্বীকার করছেন হাসপাতাল সুপার রঞ্জন আইয়ার। তার দাবি, দেড় বছর আগেই সোলাঙ্কির বুকে ব্যথা হয়েছিল। সেই সময় হাসপাতালেও ভর্তি হতে হয় তাকে। ভ্যাকসিন নেওয়ার আগে নিজের এই শারীরিক অবস্থার কথা জানানো উচিত ছিল সোলাঙ্কির। কিন্তু তিনি তা জানান নি। সুপারের মতে, সম্ভবত হার্ট অ্যাটাকের ফলেই মৃত্যু হয়েছে তার।

দেশে টিকাকরণ শুরুর পর থেকেই বেশ কয়েক জনের মৃত্যুর ঘটনা সামনে এসেছে। যদিও এখনও পর্যন্ত কোনও ক্ষেত্রেই ভ্যাকসিনকে মৃত্যুর কারণ হিসেবে মেনে নেয়নি প্রশাসন। কিন্তু এই ধরনের মৃত্যুর ঘটনায় আতঙ্ক বাড়ছে। বেঙ্গালুরুতে বহু স্বাস্থ্যকর্মীকে দেখা গেছে, যারা ভ্যাকসিন না নিয়েও তা নেওয়ার ভুয়া দাবি করেছেন বলে অভিযোগ।