মেসির সঙ্গে চুক্তির তথ্য ফাঁস করায় এল মুন্দোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিচ্ছে বার্সা

4
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস নিউজ ডেস্কঃ
লিওনেল মেসির সঙ্গে ৫৫৫ মিলিয়ন ইউরো চুক্তির বিষয় ফাঁস করে দেওয়া পত্রিকার বিরুদ্ধে বৈধ ব্যবস্থা নেওয়ার কথা জানিয়েছে বার্সেলোনা। ক্যাম্প ন্যুয়ে আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের বর্তমান চুক্তির বিষয়টি ফাঁস করেছে স্প্যানিশ পত্রিকা এল মুন্দো।

পত্রিকাটি এক প্রতিবেদনে জানায়, চার বছরের চুক্তিতে মেসিকে তার নির্দিষ্ট বেতন, বোনাস, সাইনিং মানিসহ আরও অনেক কিছু মিলিয়ে চুক্তিতে বছরে ১৩৮ মিলিয়ন ইউরো করে দিতে হচ্ছে।  

এই তথ্য প্রকাশ্যে আনায় মেসি ও ক্লাবের ভাবমূর্তি নষ্ট হয়েছে জানায় কাতালান জায়ান্টরা। তথ্য ফাঁসে নিজেদের সম্পৃক্ততার কথা অস্বীকার করে এক আনুষ্ঠানিক বিবৃতি দিয়েছে বার্সা। যেখানে ক্লাবের ব্যক্তিগত তথ্য ফাঁস করে দেওয়ায় এল মুন্দোর বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার ঘোষণা দেয় বার্সা কর্তৃপক্ষ।

মেসি চার বছরের জন্য এই চুক্তিতে সই করেন ২০১৭ সালে। এরপর থেকে গত ৪ বছরে তিনি কাতালানদের থেকে অস্বাভাবিক হারে ৫৫৫ কোটি ইউরো নিয়েছেন। যা বাংলাদেশি মুদ্রায় ৫ হাজার ৭০২ কোটি টাকার বেশি।

৩৩ বছর বয়সী ফরোয়ার্ড ক্যাম্প ন্যুয়ে আছেন আর ৬ মাস। আগমী জুনে বার্সার সঙ্গে তার চুক্তির মেয়াদ শেষ হবে। ইতোমধ্যে বার্সা থেকে মেসি ৫১০ মিলিয়ন ইউরো পেয়েছেন এবং আগামী ৬ মাসের জন্য আর্জেন্টাইন পকেটে যাচ্ছে আরও ৪৫ মিলিয়ন ইউরো। এমনটাই জানিয়েছে এল মুন্দো। পত্রিকাটির দাবি, পেশাদারি স্পোর্ট ইতিহাসে সবচেয়ে বেশি আয় করা অ্যাথলেট মেসি।  

১৭ বছর বয়সে বার্সার মূল দলে অভিষেক হয় আর্জেন্টাইন ফরোয়ার্ডের। বর্তমানে তিনি ক্লাবটির অধিনায়ক। অনেকে মনে করছেন, মেসির কারণে অর্থনৈতিক সংকটে পড়েছে বার্সা।

এল মুন্দোর প্রতিবেদন প্রকাশ হওয়ার একদিন আগেই বার্সা তাদের ২০১৯/২০ মৌসুমের আর্থিক বিবরণ প্রকাশ করে। যেখানে ১.২ বিলিয়ন অংকের বিশাল দেনার কথা বলা হয়। এর মধ্যে আবার স্বল্প সময়ের ঋণ হিসেবে ৭২০ মিলিয়ন ইউরো ও ২৬৬ মিলিয়ন ইউরো নেওয়া হয়েছে কয়েকটি ব্যাংক ও আর্থিক কোম্পানি থেকে।