সহস্রাধিক পুলিশও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত!

14
Print Friendly, PDF & Email

ঋত্বিক তারিক, ঢাকাঃ
সারাদেশের বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের পাশাপাশি জনগণের নিরাপত্তায় নিয়োজিত জনগুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা বাহিনীর পুলিশ সদস্যরাও আক্রান্ত হচ্ছেন ডেঙ্গুতে।

রাজধানীর রাজারবাগের কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে প্রায় ১ হাজার ৯০ জন পুলিশ সদস্য ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে চিকিৎসা নিয়েছেন। হাসপাতালের চিকিৎসক ড. মনোয়ার হাসনত এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, গত রবিবার (২৮ জুলাই) পর্যন্ত এসব ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হয়।

রাজারবাগ কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের শয্যা সংখ্যা ২৫০টি। সিট খালি না থাকায় অন্যান্য বিভাগেও ডেঙ্গু রোগীদের চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। এতে ভোগান্তিও পোহাতে হচ্ছে রোগীদের।

কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালে দায়িত্বরত পুলিশ সুপার (এসপি) ইমদাদুল হক জানান, এখন হাসপাতালে মোট ৯৩ জন ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিচ্ছেন।

কেন্দ্রীয় পুলিশ হাসপাতালের চিকিৎসক ডা. মনোয়ার হাসনত বলেন, গত মে মাসের মধ্যভাগ থেকে এখন পর্যন্ত ৮৩০ জন আউটডোরে ও ২৬০ জন ইনডোরে চিকিৎসা নিয়েছেন। সব মিলিয়ে মোট ১ হাজার ৯০ জন চিকিৎসা নিয়েছেন।

এদিকে, দায়িত্বরত চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. আরিফ রেদোয়ান বলেন, ‘গত রোববার পর্যন্ত ইমার্জেন্সিতে ১৫০ জনের মতো রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। এর ভেতরে ১২০ জনের মতো ডেঙ্গু রোগী। আর গত ১৫ দিনে আউটডোরে অন্তত ১০০ জন করে ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। সেই হিসেবে ১৫ দিনেই দেড় হাজার ডেঙ্গু রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন।’

ডা. আরিফ রেদোয়ান আরো বলেন, ‘দুই সপ্তাহ আগে ডেঙ্গুর প্রকোপ কম ছিল। তবে চলতি মাসের প্রথম ১০ দিন অন্তত ৩০০ রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন। তার মানে চলতি মাসের ২৮ তারিখ পর্যন্ত অন্তত ১ হাজার ৮০০ জন ডেঙ্গু রোগী পুলিশ হাসপাতালেই চিকিৎসা নিয়েছেন।’

দেশের বিভিন্ন সরকারি ও বেসরকারি হাসপাতাল মিলিয়ে মোট ১৫ হাজার ৩৬৯ জন ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। স্বাস্থ্য অধিদফতরের হেল্থ ইমার্জেন্সী অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুম থেকে পাঠানো প্রতিবেদন থেকে এই তথ্য পাওয়া গেছে।

স্বাস্থ্য অধিদফতরের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল মঙ্গলবার দুপুর নাগাদ গত ২৪ ঘণ্টায় আরও এক হাজার ৩৩৫ জন ডেঙ্গু আক্রান্ত হয়ে দেশের বিভিন্ন হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন। এর মধ্যে ঢাকার বিভিন্ন সরকারি-বেসরকারি হাসপাতাল ও ক্লিনিকে ভর্তি হয়েছেন ৯৭৪ জন। সারা দেশে বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষের সঙ্গে জনগণের নিরাপত্তায় নিয়োজিত জনগুরুত্বপূর্ণ নিরাপত্তা বাহিনীর পুলিশ সদস্যরাও ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হচ্ছেন।