ঠাকুরগাঁওয়ে স্ত্রী হত্যার দায়ে স্বামীর মৃত্যুদণ্ড

6
Print Friendly, PDF & Email

জুনাইদ কবির, ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁওয়ে ফরিয়া আক্তার মুমু নামে এক গৃহবধূকে হত্যার অভিযোগে তার স্বামী ইমতিয়াজ হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড দিয়েছেন আদালত।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) বেলা সাড়ে ১১টায় জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মামুনুর রশিদ এ রায় দেন।

এ মামলায় ইমতিয়াজ হোসেনকে সহযোগিতা করায় অপর আসামি আসাদ হোসেন জেসিকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দেয়া হয়। ইমতিয়াজ হোসেন ঠাকুরগাঁও শহরের মুন্সিপাড়া এলাকার মৃত এস এম আজিম ছেলে ও আসাদ হোসেন কলেজপাড়া এলাকার মৃত নুরুল মমিনের ছেলে।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাড. শেকর কুমার রায় বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০১৩ সালের ১ আগস্ট জেলা শহরের মুন্সিপাড়ায় নববধু ফারজানা আক্তার মুমুকে পরিকল্পিতভাবে শ্বাসরোধে হত্যার পর ফাঁসিতে ঝুলিয়ে রাখেন স্বামী ইমতিয়াজ হোসেন। পরে এই ঘটনা পুলিশ বাদী হয়ে ঠাকুরগাঁও সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেন। পরে সদর থানা পুলিশের এসআই ও বর্তমান হরিপুর থানার ওসি (তদন্ত) নাজমুল হক বাদি হয়ে ২০১৩ সালের ২৩ অক্টোবর সহযোগী আসাদ হোসেনসহ দুজনের নাম উল্লেখ করে হত্যা মামলা দায়ের করেন। এরপর ২০১৪ সালে মামলার তদন্ত করেন সদর থানার সাবেক এসআই ও বর্তামন থানার অফিসার ইনচার্জ আতিকুর রহমান চার্জশিট দাখিল করেন।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী অ্যাড. শেকর কুমার রায় বলেন, অভিযোগ প্রমাণিত হওয়ায় ইমতিয়াজ হোসেনকে মৃত্যুদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া অপর আসামিকে আসাদ হোসেনকে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড ও এক লাখ টাকা জরিমানা অনাদায়ে তিন বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দেয়া হয়।