বিএনপির নেতারা শুরুতে বলেন ভোট সুষ্ঠু, সন্ধ্যায় বলেন কারচুপি হয়েছে: হানিফ

13
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, কুষ্টিয়া:
আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব-উল আলম হানিফ বলেছেন, ‘ভোট অবাধ ও সুষ্ঠু হচ্ছে। দিনের শুরুতে বিএনপির প্রার্থী ও নেতারা ভোট সুষ্ঠু হচ্ছে বললেও সন্ধ্যায় যখন লজ্জাজনক পরাজয় হয়, তখনি বলেন ভোটে কারচুপি হয়েছে। জনবিচ্ছিন্ন এই দলের সরকারের বিরুদ্ধে কথা বলতেই হবে। তাই তারা কোনো ইস্যু না পেয়ে নানান মিথ্যাচার করে।’

শনিবার সকাল সাড়ে ৮টায় কুষ্টিয়া পৌরসভার সরকারি কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিয়ে সাংবাদিকদের সামনে এসব কথা বলেন হানিফ।

জেলার কুমারখালী পৌরসভায় ইলেক্ট্রনিক ভোটিং মেশিনে (ইভিএম) ভোট হচ্ছে। বাকি কুষ্টিয়া, মিরপুর ও ভেড়ামারা পৌরসভায় ব্যালটের মাধ্যমেই ভোট হচ্ছে। শীত উপেক্ষা করে সকালেই ভোটাররা ভোটকেন্দ্রে আসেন। এই প্রথমবার সকালে কেন্দ্রগুলোতে ব্যালট পেপার পৌঁছে দেওয়ায় ভোটার ও প্রার্থীদের মধ্যে আস্থা বেড়েছে বলে মনে করা হচ্ছে।

কুষ্টিয়া পৌরসভায় বিএনপির মেয়র পদপ্রার্থী বশিরুল আলম চাঁদ নিজের ভোট দিয়ে ভোটের পরিবেশ নিয়ে সন্তুষ্টি প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘শেষ পর্যন্ত এমন পরিবেশ কামনা করছি।’

জেলা রিটানিং কর্মকর্তা লুৎফুন নাহার বলেন, ভোট সুষ্ঠু করতে, ‘যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতি এড়াতে কয়েক স্তরে পুলিশ, র‌্যাব, আনসার সদস্যরা কাজ করছে। নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটদের নেতৃত্বে মোবাইল টিম বা ভ্রাম্যমাণ আদালতও কাজ করছে। স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে বিজিবি সদস্যরা কেন্দ্রের বাইরে টহল দিচ্ছেন।’

কুষ্টিয়ার চার পৌরসভায় আওয়ামী লীগ, বিএনপি ও জাসদসহ মোট ১২ জন মেয়র পদের জন্য লড়ছেন। প্রার্থীদের আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে নির্বাচন কমিশন গতকাল রাতের পরিবর্তে আজ সকালে ভোট কেন্দ্রগুলোতে ব্যালট পেপার পৌঁছায়।