সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে না সরকার: মির্জা ফখরুল

17
Print Friendly, PDF & Email

জুনাইদ কবির, ঠাকুরগাঁও:
বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, সাধারণ মানুষের কথা চিন্তা করে না সরকার। তাদের একমাত্র চিন্তা তারা কি করে- ধনী হবে, বিদেশে বাসা বানাবে, টাকা পাচার করবে।

শুক্রবার (১৫ জানুয়ারি) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ে নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে এক মতবিনিময় সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

মির্জা ফখরুল আরো বলেন, সরকারের উচিত হবে পদত্যাগ করে নিরপেক্ষ নির্বাচনের ব্যবস্থা করা। সে সঙ্গে জনগণকে ভোট দেয়ার সুযোগ করে দেয়া। তবে এই নির্বাচন হতে হবে একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায়।

সরকারের উন্নয়নের কথা তুলে ধরে বিএনপির এই নেতা বলেন, আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদেরকে বলুন একবার আয়নার দিকে তাকিয়ে নিজেকে প্রশ্ন করতে। কি করছেন আপনারা? আজকের এই সরকার জাতির সমস্ত আশা-আকাঙ্খাকে ধ্বংস করে দিয়েছেন। উন্নয়ন বিএনপিও চায় কিন্তু সেই উন্নয়ন মানে সাধারণ জনগণের পকেট কেটে রাস্তায় নামিয়ে দেয়া নয়।

আসন্ন পৌরসভার চতুর্থ ধাপের নির্বাচনে ধানের শীষের প্রতি জনগণের ব্যাপক সমর্থন দেখা যায় এমনি দাবি করে মির্জা ফখরুল বলেন, আমার বিশ্বাস করি যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয়, ভোটাররা যদি ভোটকেন্দ্রে যেতে পারে, ভোট চুরি ও ডাকাতি করে যদি না নেয়া হয় তাহলে অবশ্যই বিএনপির মনোনীত প্রার্থী জয়লাভ করবে।

বিগত পৌরসভা নির্বাচনগুলোতে সরকারদলীয় লোকেরা জোর করে ভোট ছিনিয়ে নিয়ে গেছে এমনি মন্তব্য করেন, এখন পর্যন্ত যে কয়েকটি পৌর নির্বাচন দেখেছি প্রায় বেশিরভাগ কেন্দ্রেই আওয়ামী লীগের সন্ত্রাসীরা ভোট ডাকাতি করে নিয়েছে ঠিক ২০১৮ সালের জাতীয় নির্বাচনের মতো।

এ সময় অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক মির্জা ফয়সল আমীন, পৌর নির্বাচনে বিএনপির মনোনীত প্রার্থী ও জেলা বিএনপির অর্থ বিষয়ক সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শরিফসহ জেলা ও উপজেলা বিএনপির নেতৃবৃন্দরা।