টি-টেনেই আগামী দেখছেন সাঙ্গাকারা

8
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস নিউজ ডেস্কঃ
আন্তর্জাতিক ক্রিকেট এখনও খেলা হয় তিন ফরম্যাটে- সাদা পোশাকের টেস্ট ক্রিকেট এবং রঙিন পোশাকের ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। তবে এরই মধ্যে জনপ্রিয়তা পেতে শুরু করেছে দশ ওভারের টি-টেন ক্রিকেট। বিশ্বের নামীদামী তারকাদের অংশগ্রহণে গত কয়েক বছর ধরেই চলছে ফ্র্যাঞ্চাইজিভিত্তিক টি-টেন ক্রিকেট লিগ।

চলতি মাসে দুবাইয়ে বসতে চলেছে টি-টেন লিগের নতুন আসর। এই ফরম্যাটের জনপ্রিয়তাকে মাথায় রেখে, এমসিসি প্রেসিডেন্ট ও কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান কুমার সাঙ্গাকারাও মনে করেন, ক্রিকেটের ভবিষ্যত আছে এই টি-টেনের মধ্যেই। বিশেষ করে অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে বড় ভূমিকা রাখবে টি টেন- এমনটাই অভিমত সাঙ্গার।

আসন্ন টি-টেন লিগে টিম আবুধাবির মেন্টর হিসেবে দায়িত্ব পালন করবেন শ্রীলঙ্কান কিংবদন্তি। তিনি মনে করেন, কুড়ি ওভারের টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট দিয়ে শুরু হয়েছিল অলিম্পিকে খেলাটির অন্তর্ভুক্তির জোর আলোচনা। এবার টি-টেন ক্রিকেট দিয়ে সেটি শিগগিরই বাস্তবায়িত হতে পারে।

সাঙ্গাকারার ভাষ্য, ‘অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে অনেক বড় একটা ইতিবাচক ধাক্কা দিয়েছে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেট। অলিম্পিকে কি টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটই হবে? তারা কি এক্ষেত্রে টি-টেনের মতো আরও সংক্ষিপ্ত ফরম্যাটের কথা চিন্তা করবে? অলিম্পিকে ক্রিকেট অন্তর্ভুক্তির ক্ষেত্রে অনেক কাজ করতে হবে।’

কী সেগুলো? জানিয়েছেন সাঙ্গাকারা, ‘প্রতিটি দেশের ক্রিকেট বোর্ডকে এগিয়ে আসতে হবে। আইসিসিতে জোর তাগাদা দিতে হবে। অলিম্পিকে এমন ফরম্যাট দিতে হবে, যেখানে সময়ের হিসেবটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে, অলিম্পিকের দর্শকদের আটকে রাখতে হবে। কারণ তারা অন্যান্য ক্রিকেট দর্শকদের মতো নয়। সম্পূর্ণ নতুন একটা দর্শকগোষ্ঠী।’

তিনি আরও যোগ করেন, ‘অনেক বছর ধরেই অলিম্পিকে ক্রিকেট ঢোকানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। কমনওয়েলথ গেমসের কয়েক আসরে ক্রিকেট হয়েছে। আমি মনে করি এটি (টি-টেন ক্রিকেট) এমন একটি ফরম্যাট, যা নিয়ে ভাবা যেতে পারে যে টি-টেন নাকি টি-টোয়েন্টি? দুইয়ের মধ্যে যেটা ভালো হবে, সেটাই অলিম্পিকে অন্তর্ভুক্ত করা উচিত।’

আগামী ২৮ জানুয়ারি থেকে শুরু হবে দুবাই টি-টেন লিগের চতুর্থ আসর। যা চলবে ৬ ফেব্রুয়ারি থেকে। এবারের আসরে ক্রিস গেইল, ইয়ন মরগ্যানদের মতো তারকারা অংশ নিচ্ছেন।