‘সবার ঢাকা’ অ্যাপের উদ্বোধন

9
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন ডেস্ক রিপোর্ট:
ঢাকা উত্তর সিটির বাসিন্দাদের নাগরিক অভিযোগ জানাতে নতুন একটি অ্যাপের উদ্বোধন করেছে নগর কর্তৃপক্ষ। এর মাধ্যমে যে কোনো নাগরিক ভোগান্তি সরাসরি অভিযোগ করে জানাতে পারবেন নগরবাসী।

এ অ্যাপের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশনের (ডিএনসিসি) মেয়র মো. আতিকুল ইসলাম বলেছেন, নগরবাসীর কাছে জবাবদিহিতা নিশ্চিত করতে ‘সবার ঢাকা’ অ্যাপের বন্দোবস্ত করেছি।

মেয়র বলেন, আজ এই ঐতিহাসিক স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষে অ্যাপ-এর উদ্বোধন করা হচ্ছে। এই অ্যাপের মাধ্যমে জবাবদিহিতা বৃদ্ধি পাবে। আমরা প্রত্যেককে জবাবদিহিতার আওতায় আনতে চাই। জবাবদিহি যেমন আমাকে করতে হবে, তেমনি প্রত্যেক কাউন্সিলর এবং প্রত্যেক কর্মচারীকেও করতে হবে। এজন্যই এই অ্যাপের বন্দোবস্ত করেছি।

আতিকুল ইসলাম আরও বলেন, বঙ্গবন্ধুকে হত্যার পরে ২১ বছর আমরা পিছিয়ে ছিলাম। আজকে ঢাকা শহরের যে অবস্থা, পরিকল্পনার অভাব। ২১ বছর পিছিয়ে না থাকলে আজকে ঢাকা শহর এরকম হতো না।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি স্থানীয় সরকার, পল্লী উন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী মো. তাজুল ইসলাম বলেন, সারাবিশ্ব আজ তাকিয়ে দেখছে বাংলাদেশকে। এই বাংলাদেশ বঙ্গবন্ধু স্বপ্ন দেখেছিলেন। এই বাংলাদেশ সারা বিশ্বে আজ রোল মডেল।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্য প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, ‘সবার ঢাকা’ একটি অসাধারণ অ্যাপ্লিকেশন, এটি একটি ডাইনামিক অ্যাপ্লিকেশন, যে অ্যাপ্লিকেশনের মাধ্যমে নাগরিক সেবা সম্পর্কিত যেকোন অভিযোগ পাঠাতে পারবেন সিটি কর্পোরেশনকে। পাঠানোর পরে যে এলাকা থেকে এই সমস্যাটি পাঠালেন, যেখান থেকে ছবি তুলে পাঠালেন, সেটা কিন্তু গুগল ম্যাপে লোকেশন ট্র্যাক করে, একেবারে পিন পয়েন্ট করে, ঐখানে গিয়ে সমস্যার সমাধান করবে সিটি কর্পোরেশন কর্মকর্তারা।

অনুষ্ঠানে ঢাকা মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি শেখ বজলুর রহমান, সাধারণ সম্পাদক এস এম মান্নান কচি, জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক আখতার মাহমুদ, ডিএনসিসির প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সেলিম রেজা, প্রধান প্রকৌশলী ব্রিগেডিয়ার জেনারেল আমিরুল ইসলাম বক্তব্য রাখেন।