স্মিথ-কোহলিকে ছাড়িয়ে টেস্টের সেরা ব্যাটসম্যানের উইলিয়ামসন

৩১ই ডিসেম্বর, ২০২০ || ০১:২৮:২১
6
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস নিউজ ডেস্কঃ
আইসিসি টেস্ট ব্যাটসম্যানদের র‌্যাংকিংয়ে শীর্ষস্থান দখল করেছেন কেন উইলিয়ামসন। সদ্য প্রকাশিত র‌্যাংকিংয়ে নিউজিল্যান্ড অধিনায়ক টপকে গেছেন স্টিভেন স্মিথ ও বিরাট কোহলিকে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম ইনিংসে সেঞ্চুরি করেন উইলিয়ামসন। তার অনবদ্য সেঞ্চুরিতে বড় ব্যবধানে জয় পায় কিউইরা। এর আগে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ডাবল সেঞ্চুরি করে ছুটিতে যান তিনি।

এর আগে ২০১৫ সালের শেষদিকে টেস্টে র‌্যাংকিংয়ে সংক্ষিপ্ত সময়ের জন্য শীর্ষে ওঠেন উইলিয়ামসন। তবে এরপর থেকে শীর্ষস্থান নিয়ে যুদ্ধ হয়েছে স্মিথ ও কোহলির মধ্যে। ৩০ বছর বয়সী ডানহাতি ব্যাটসম্যান সিংহাসনে বসার আগে এই বছরেও ৩১৩ দিন শীর্ষে ছিলেন স্মিথ। কোহলি ছিলেন ৫১ দিন। ২০০৮ সালের অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেট বিশ্বকাপ থেকে এই দুই ব্যাটসম্যানের সঙ্গে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করে আসতে হচ্ছে উইলিয়ামসনকে।  

বছরের শেষদিনে আইসিসি টেস্ট র‌্যাংকিং হালনাগাদের সময় অন্তর্ভূক্ত করা হয়েছে মেলবোর্নে অস্ট্রেলিয়া-ভারত সিরিজের দ্বিতীয় টেস্ট এবং সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ-শ্রীলঙ্কা সিরিজের প্রথম টেস্টের পারফর্ম্যান্স।  

উইলিয়ামসন ১৩ পয়েন্ট অর্জন করেছেন পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে ১২৯ ও ২১ রানের জন্য। এই পয়েন্ট নিয়ে কিউই ব্যাটসম্যান কোহলির চেয়ে ১১ ও স্মিথের চেয়ে ১৩ পয়েন্ট এগিয়ে গেছেন। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে চলমান চার টেস্ট সিরিজে প্রথম ম্যাচটি খেলে পিতৃত্বকালীন ছুটি নিয়ে দেশে ফেরেন কোহলি। অন্যদিকে প্রথম টেস্টে হাসেনি স্মিথের ব্যাট। প্রথম ইনিংসে ০ ও ৮ রান করে আউট হন তিনি। 

ব্যাটসম্যানদের মধ্যে টেস্ট র‌্যাংকিংয়ে তিন ধাপ এগিয়ে ১৪তম স্থানে বসেছেন আরেক ব্ল্যাক ক্যাপ তারকা রস টেইলর। মাত্র ৫ টেস্ট খেলে শীর্ষ ৩০ বোলারদের মধ্যে জায়গা করে নিয়েছেন কাইল জেমিসন। ২৬ বছর বয়সী পেসার পাকিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ইনিংসে ৩৫ রানে নেন ৩ উইকেট। একই রান দিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে নেন ২ উইকেট।  

পাকিস্তানিদের মধ্যে বড় লাফ দিয়েছেন ফাওয়াদ আলম। কিউইদের বিপক্ষে প্রথম টেস্টে সেঞ্চুরি পান তিনি। ১১ বছর পর সাদা পোশাকের ক্রিকেটে দ্বিতীয় সেঞ্চুরি নিয়ে ১২০তম স্থানে বসেছেন ফাওয়াদ। একই টেস্টে ৭১ ও ৬০ রান করেন উইকেটরক্ষক রিজওয়ান। তিনি ২৭ ধাপ এগিয়ে ক্যারিয়ার সেরা ৪৭তম স্থানে জায়গা করে নিয়েছেন। এছাড়া বাঁহাতি পেসার শাহীন আফ্রিদি প্রথম ইনিংসে ৪ উইকেট নিয়ে ৩৫ থেকে ৩৩তম স্থানে ওঠে এসেছেন।  

কোহলির অবর্তমানে ভারতকে নেতৃত্ব দিয়ে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সিরিজে ভারতকে সমতায় ফিরিয়েছেন আজিঙ্কা রাহানে। মেলবোর্ন টেস্টে ৮ উইকেটের জয় তুলে নেয় টিম ইন্ডিয়া। অজিদের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টে ১১২ ও অপরাজিত ২৭ রান করেন রাহানে। তিনি পাঁচধাপ এগিয়ে বসেছেন ষষ্ঠ স্থানে। ২০১৯ সালে ক্যারিয়ার সেরা পঞ্চম স্থানে ওঠেছিলেন রাহানে।  

অফ-স্পিনার রবিনচন্দ্র অশ্বিন দুই ধাপ এগিয়ে সাতে ওঠেছেন এবং পেসার জসপ্রীত বুমরাহ নবম স্থানে বসেছেন একধাপ এগিয়ে। অলরাউন্ডার রবীন্দ্র জাদেজা মেলবোর্নে প্রথম ইনিংসে ৫৭ রান করে ১১ ধাপ এগিয়ে ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ক্যারিয়ার সেরা ৩৬তম স্থানে বসেছেন এবং বোলিংয়ে ৩ উইকেট নিয়ে ৪ ধাপ এগিয়ে বোলারদের মধ্যে ১৪তম স্থানে বসেছেন। টেস্ট অলরাউন্ডারদের মধ্যে আগের তৃতীয় স্থান ধরে রেখেছেন তিনি। তার নিচে সাকিব আল হাসান। আগের চতুর্থ অবস্থানে আছেন বাংলাদেশি অলরাউন্ডার।  

ভারতের হয়ে অভিষেক টেস্ট খেলা শুভমান গিল ও মোহাম্মদ সিরাজও উল্লেখযোগ্য অবস্থানে জায়গা করে নিয়েছেন। অজিদের বিপক্ষে দুই ইনিংসে ৪৫ ও ৩৫ রান নিয়ে গিল ব্যাটসম্যানদের মধ্যে ৭৭ ও সিরাজ ৫ উইকেট নিয়ে বোলারদের মধ্যে ৭৭তম অবস্থানে আছেন।  

অস্ট্রেলিয়ার বাঁহাতি পেসার মিচেল স্টার্ক ভারতের বিপক্ষে ৪ উইকেট নিয়ে বোলারদের মধ্যে আবারও ক্যারিয়ার সেরা পঞ্চম স্থান দখল করেছেন। অন্যদিকে অজি ব্যাটসম্যান মধ্যে ম্যাথু ওয়েড ৫৫তম স্থান থেকে ঢুকেছেন সেরা পঞ্চাশে। ৩৬ ধাপ এগিয়ে ১১৫তম স্থানে বসেছেন ক্যামরুন গ্রিন।