রেনুকে প্রথম ‘ছেলেধরা’ বলা রিয়া গ্রেপ্তার

17
Print Friendly, PDF & Email

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকাঃ
রাজধানীর বাড্ডায় গণপিটুনি দিয়ে তাসলিমা বেগম রেনু হত্যার ঘটনায় অন্যতম অভিযুক্ত রিয়া বেগম ওরফে ময়নাকে (২৭) গ্রেপ্তার করেছে বাড্ডা থানা পুলিশ।

বৃহস্পতিবার রাত ১০টায় সাঁতারকুল এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাকে গ্রেপ্তার করা হয়।

শুক্রবার বিকালে ঢাকা মহানগর পুলিশের মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশন্স বিভাগের উপ-কমিশনার (ডিসি) মাসুদুর রহমান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, শুক্রবার গ্রেপ্তার রিয়া বেগমকে ৭ দিনের রিমান্ড চেয়ে বিজ্ঞ আদালতে পাঠিয়েছে বাড্ডা থানা পুলিশ।

এ ঘটনায় আগে নারায়ণগঞ্জ, বাড্ডা ও উত্তর বাড্ডা এলাকা থেকে ৮ জনকে গ্রেপ্তার করে ডিএমপি’র বাড্ডা থানা ও গোয়েন্দা পুলিশ।

শনিবার সকালে উত্তর বাড্ডায় ছেলেধরা সন্দেহে তাসলিমা বেগম রেনুকে (৪০) পিটিয়ে হত্যা করে স্থানীয়রা। ঘটনার দিন তাসলিমা তার সন্তানের ভর্তির ব্যাপারে স্কুলে যায়। সেখানে গিয়ে তিনি অভিভাবক রিয়া বেগমকে বিভিন্ন কথা জিজ্ঞাসা করে।

এক পর্যায়ে তিনি ওই অভিভাবকের বাসার ঠিকানা জিজ্ঞাসা করেন। এতে রিয়া বেগম সন্দেহ করে তাসলিমাকে ছেলেধরা বলে চিৎকার করে। চিৎকার শুনে অতি উৎসাহী জনতা তসলিমাকে পিটিয়ে গুরুতর জখম করে।

গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে পাঠানো হলে কর্তব্যরত চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।