জবিতে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শুরু হচ্ছে স্নাতক ও স্নাতকোত্তর পরীক্ষা

12
Print Friendly, PDF & Email

জবি করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
স্বাস্থ্যবিধি মেনে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ে (জবি) স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ২য় সেমিস্টার ও স্নাতকোত্তর ২য় সেমিস্টারের পরীক্ষা শুরু হয়েছে। রোববার (২০ ডিসেম্বর) সকাল নয়টা থেকে এই পরীক্ষা শুরু হয়।

শিক্ষার্থীদের আন্দোলনের ফলে গত ৭ ডিসেম্বর স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ২য় সেমিস্টার ও স্নাতকোত্তর ২য় সেমিস্টার পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে এই তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছিল।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, ৭ ডিসেম্বর (সোমবার) বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমানের সভাপতিত্বে ‘ডিনস কমিটি’র সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় স্বাস্থ্যবিধি মেনে আগামী ২০ ডিসেম্বর থেকে স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ২য় সেমিস্টার ও স্নাতকোত্তর ২য় সেমিস্টারের পরীক্ষা নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়। তবে পরীক্ষা চলাকালে শিক্ষার্থীদের নিজস্ব ব্যবস্থাপনায় যাতায়াত করার জন্য বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়।

জানা যায়, দীর্ঘদিন যাবত পরীক্ষা নেয়ার জন্য স্নাতক ৪র্থ বর্ষের ২য় সেমিস্টার ও স্নাতকোত্তর ২য় সেমিস্টারের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন বরাবর দাবি জানিয়ে আসছিল। শিক্ষার্থীদের দাবি ও ভবিষ্যতের কথা চিন্তা করেই প্রশাসন এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

এ ব্যাপারে জবি রেজিস্ট্রার প্রকৌশলী মো: ওহিদুজ্জামান বলেন, শিক্ষার্থীরা চাচ্ছে তাই আমরা তাদের উপকারের জন্যই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। গত ১৭ মার্চ, ২০২০ থেকে করোনা মহামারীর কারনে বিশ্ববিদ্যালয়ের সকল ক্লাস পরীক্ষা বন্ধ রয়েছে। শেষ বর্ষের পরীক্ষা না হওয়ায় শিক্ষার্থীরা বিভিন্ন চাকরিতে আবেদন করতে পারছিলো না, যার প্রেক্ষিতে তারা পরীক্ষা নেওয়ার জন্য বিভিন্নভাবে আবেদন করে আসছিল আন্দোলন করার জন্য প্রস্তুতি নিতে চাইছিল তাই আমরা এ সিদ্ধান্ত নিয়েছি।

এ বিষয়ে জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, স্নাতক ও স্নাতকোত্তর শিক্ষার্থীদের সুবিধার ক্ষেত্রেই তাদের পরীক্ষার সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। যাদের ক্লাস শেষ হয়েছিল এবং পরীক্ষার প্রস্তুতি নেয়া ছিল তাদের পরীক্ষার রুটিন করা হয়েছে। স্বাস্থ্যবিধি রক্ষার্থে একটা রোটেশন করা হয়, যেন সবাই একসাথে না আসে। ডিপার্টমেন্টের চেয়ারম্যান ও বিভাগীয় ডিনগণ একটা রোটেশন করেছে এবং একটা নির্দিষ্ট সংখ্যক পরীক্ষার্থীরা ওই দিন পরীক্ষা দিতে আসবে। অর্থাৎ একদিন এক গ্রুপ অন্যদিনে অন্য গ্রুপ পরীক্ষা দিবে।