এখন এমন হয়েছে- ছেলে বিএনপি করে শুনে মেয়ে বিয়েও দিতে চায় না: ফখরুল

20
এখন এমন হয়েছে-ছেলে বিএনপি করে শুনে মেয়ে বিয়েও দিতে চায় না: ঠাকুরগাঁওয়ে মির্জা ফখরুল।
Print Friendly, PDF & Email

ডিষ্ট্রিক্ট করসপন্ডেন্ট, ঠাকুরগাঁও:
স্বাধীনতার পর এর মতো খারাপ সময় কখনো আসেনি। একসময় আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছেও যাওয়া যেত। বিচার পাওয়া যেত। এখন কারও কাছে যাওয়াও যায় না, বিচারও পাওয়া যায় না বলে মন্তব্য করেছেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর।

বুধবার (২১ অক্টোবর) সকালে ঠাকুরগাঁওয়ের নিজ বাসভবনে সাংবাদিকদের সঙ্গে মতবিনিময়কালে এসব কথা বলেন তিনি।

মির্জা ফখরুল বলেন, বর্তমান বিচার বিভাগের দায়িত্ব হচ্ছে সরকারের হুকুম পালন করা। ১০ বছর ধরে আমরা হয়রানির শিকার হচ্ছি। এখন এমন হয়েছে সামাজিকভাবে সম্পর্ক তৈরিতেও আওয়ামী লীগ-বিএনপি দেখা হচ্ছে। ছেলে বিএনপি করে শুনলে মেয়ে বিয়েও দেয়া হচ্ছে না। এখানে ভালো কিছু আশা করা অসম্ভব।

তিনি আরও বলেন, আমরা গণতন্ত্র চাই। সবাই যেন উন্মক্তভাবে কথা বলতে পারেন। সরকারের বিরুদ্ধে কিছু বললে বা লিখলেই ধরা হচ্ছে। আমরা কোন রাষ্ট্রে বসবাস করছি। ৫০ বছরে আমরা এই রাষ্ট্র চাইনি।

তিনি বলেন, দৈনন্দিন জীবনে যদি দেখি, যারা রিক্সা ও ভ্যান চালাচ্ছেন, নির্মাণ ও মোটর শ্রমিকে কাজ করছেন দ্রব্যমূল্য বৃদ্ধি হওয়ার ফলে তাদের আয় কমে গেছে। এতে ধনী ও গরিবের মাঝে বৈষম্য বৃদ্ধি পাচ্ছে। তিনি বিশেষ করে দারিদ্রকে কমিয়ে আনার বিষয়টি দেখা উচিত বলে মনে করেন।

এছাড়াও সংবাদ সম্মেলন শুরুর প্রথমে তিনি হিন্দু ধর্মাবলীদের আসন্ন শারদীয় দূর্গা পূজা উপলক্ষ্যে শারদীয় শুভেচ্ছা জানান ও পূজায় শান্তি বজায় রাখার জন্য সকলকে অনুরোধ করেন।

সংবাদ সম্মেলনে এ সময় বিএনপি’র বিভিন্ন নেতাকর্মী ও জেলার বিভিন্ন ইলেকট্রনিক, প্রিন্ট ও অনলাইন মিডিয়ার সাংবাদিকরা উপস্থিত ছিলেন।