ভারতে ভোট গণনা চলছে

19

বিশ্বের বৃহত্তম নির্বাচনের দেশ ভারতে লোকসভা নির্বাচনের ভোট গ্রহণ শেষ হয়েছে ১৯শে মে। বৃহস্পতিবার স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে শুরু হয়েছে ফল গণনা।

একটানা দ্বিতীয়বার সরকার গঠনের রেকর্ড গত ৩০ বছরের মধ্যে কেবল ডঃ মনমোহন সিংয়ের রয়েছে। সুতরাং নরেন্দ্র মোদির ক্ষমতায় ফিরে আসা কোনও নতুন রেকর্ড সৃষ্টি করবে না। বরং তার নেতৃত্বে বিজেপি আবার একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিয়ে লোকসভা ভোটে জয়ী হয়ে ফিরে আসছে কি না, আপাতত সেটাই কৌতূহলের শীর্ষে।

এক্সিট পোলই কি প্রতিফলিত হবে প্রকৃত ফলাফলে, নাকি বিরাট কোনও চমক অপেক্ষা করছে? গোটা দেশের আগ্রহ এখন একটাই। মোদি ম্যাজিকে ভর করে এবারও কি বিজেপি একাই গরিষ্ঠতার সীমা পেরিয়ে যাবে? নাকি একক গরিষ্ঠতা অর্জন করা বিজেপির পক্ষে সম্ভব হবে না? এই নানা প্রশ্নের উত্তর মিলবে আর কয়েক ঘণ্টা পরেই।

এগিয়ে আছেন বিজেপির বিতর্কিত প্রার্থী প্রজ্ঞা ঠাকুর

মধ্যপ্রদেশের ভোপালে বিজেপির আলোচিত ও বিতর্কিত প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা ঠাকুর এগিয়ে আছেন বলে খবর পাওয়া যচ্ছে। যদিও এটা পোস্টাল ব্যালট গণনার প্রাথমিক ফল থেকে পাওয়া তথ্য। নির্বাচনের সময় মহাত্মা গান্ধীর হত্যাকারীকে দেশপ্রেমিক আখ্যায়িত করে ব্যাপক বিতর্কের জন্ম দিয়েছিলেন। যদিও পরে তিনি এজন্য দু:খ প্রকাশ করেন।

রাহুল গান্ধী এগিয়ে কেরালার আসনে

প্রাথমিক ভাবে দেখা যাচ্ছে কেরালার ওয়েনাড আসনে এগিয়ে আসেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। উত্তর প্রদেশের আমেথির পাশাপাশি এ রাজ্য থেকে তাঁর নির্বাচনের সিদ্ধান্ত অনেককেই বিস্মিত করেছিলো। ওয়েনাডকে কংগ্রেসের জন্য সবসময় নিরাপদ আসন মনে করা হয়। বিবিসি সংবাদদাতা জানিয়েছেন মিস্টার গান্ধী বেশ ভালোভাবেই এগিয়ে আছেন সেখানে।

গণনা চলছে কাশ্মীরে

ভারত শাসিত কাশ্মীরে ভোট গণনা শুরুর খবর পাওয়া গেছে। যদিও এ রাজ্যে ভোট পড়েছে খুবই কম। মাত্র ২৯.৩৯ শতাংশ ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করেছেন। বিবিসি সংবাদদাতা আমির পীরজাদা তার টুইট বার্তায় লিখেছেন যে ভোট গণনাকে কেন্দ্র করে সেখানে কড়া নিরাপত্তা ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে।

পোস্টাল ব্যালটে প্রাথমিক ফলে এগিয়ে বিজেপি। প্রাথমিক পোস্টাল ব্যালট গণনায় কেন্দ্রগুলো থেকে যেসব খবর আসছে তাতে প্রাথমিকভাবে বিজেপিই এগিয়ে আছে বলে মনে হচ্ছে।

গোণা হচ্ছে পোস্টাল ব্যালট

ভোট গণনা শুরু হয়েছে। প্রথমে গোণা হচ্ছে পোস্টাল ব্যালট। ভারতের বিভিন্ন প্রান্তে মোতায়েন মূলত নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যদের ডাকযোগে ভোট দেবার অনুমতি রয়েছে।

উত্তর প্রদেশ ভারতের সবচেয়ে জনবহুল রাজ্য। বলা হয় এ রাজ্য জিতবে যারা তারাই ভারত শাসনের সুযোগ পাবে। পার্লামেন্টে ৮০ জন প্রতিনিধি যায় এ রাজ্য থেকেই। ভারতের ১৪ জন প্রধানমন্ত্রীর আট জনই ছিলেন এ রাজ্যের। এমনকি নরেন্দ্র মোদি গুজরাটের হলেও তিনিও ২০১৪ সালে নির্বাচন করেছিলেন উত্তর প্রদেশের বারানসী থেকে। ওই নির্বাচনে বিজেপির ৭৩ জন জিতে চমক সৃষ্টি করেছিলো এ রাজ্যে।

ভারতে লোকসভা নির্বাচনে গত ১১ এপ্রিল থেকে ১৯শে মে – মোট সাতটি ধাপে ভোট গ্রহণ হয়েছে। ৫৪৩ আসনের লোকসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেতে কমপক্ষে ২৭২টি আসন প্রয়োজন। নির্বাচনে সারা দেশে মোট ভোটার ছিলো প্রায় ৯০ কোটি। ১,৮৪১টি রাজনৈতিক দলের ৮০০০-এরও বেশি প্রার্থী এ নির্বাচনে অংশ নিয়েছেন।নারী প্রার্থীর সংখ্যা ৭২০ এবং তৃতীয় লিঙ্গের প্রার্থী ছিলেন মোট চারজন

১৯৫১-৫২ সালে ভারতের প্রথম লোকসভা নির্বাচন সম্পন্ন হতে সময় লাগে তিন মাস।