ঠাকুরগাঁওয়ে একই পরিবারের ৫ জনকে পাঠানো হলো রংপুর মেডিকেলে

55
Print Friendly, PDF & Email

জুনাইদ কবির, ঠাকুরগাঁও:
ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নে আড়াই বছরের এক শিশুসহ একই পরিবারের ৫ জন জ্বর ও শ্বাসকষ্টজনিত রোগে আক্রান্ত হয়েছে। স্থানীয় প্রশাসন ও স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন তাদেরকে পরীক্ষা করে উন্নত চিকিৎসার জন্য শনিবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে পাঠিয়েছেন।

ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রকিবুল আলম বিয়ষটি নিশ্চিত করেছেন।

স্বাস্থ্য বিভাগ সুত্রে জানা গেছে, গত শুক্রবার রাতে ঢাকা থেকে পঞ্চগড় এক্সপ্রেক্স ট্রেনে শরীরে জ্বর থাকাবস্থায় শনিবার সকালে ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার চিলারং ইউনিয়নের নিজ বাড়িতে আসেন ওই পরিবারের একজন। বাসায় আসার পর তার শরীরে জ্বরের তীব্রতা আরও বেড়ে যায়। এর সঙ্গে জ্বর, শ্বাসকষ্ট ও পাতলা পায়খানা শুরু হয়। তার পাশপাশি একই সমস্যা দেখা দেয় তার স্ত্রী ও ছোট শিশু সন্তানটিরও।

আক্রান্ত হওয়া ব্যক্তির বরাতে স্থানীয় স্বাস্থ্য বিভাগ জানিয়েছে, ঢাকা থেকে ফেরার পূর্বে ওখানে লোকজনের সাথে একটি পিকনিকে অংশ নিয়েছিলেন আক্রান্ত ব্যক্তি। পিকনিকে অংশ নেয়া ব্যক্তিদের মধ্যে একজন জনশক্তি রপ্তানি ব্যবসার সঙ্গে জড়িত। তার সংস্পর্শে আসার পরই তিনি জ্বরে আক্রান্ত হন।

ঠাকুরগাঁও সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. রকিবুল আলম জানান, স্থানীয়দের নিকট খবর পেয়ে শনিবার বিকালে স্বাস্থ্য বিভাগের লোকজন একই পরিবারের ৫ জনকে ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালে নিয়ে আসে। এরপর মেডিকেল টিম তাদের স্বাস্থ্য পরীক্ষা-নীরিক্ষা শেষে আইইডিসিআর- এর সাথে যোগাযোগ করে তাদের নির্দেশনায় সন্ধ্যার পর রংপুর মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসার জন্য প্রেরণ করে।

তিনি আরও জানান, এদের মধ্যে ঢাকা থেকে ফেরত আসা ব্যক্তি গুরুতর অসুস্থ এবং দুই বছরের শিশু ও তার স্ত্রী সর্দি, জ্বর ও পাতলা পায়খানায় আক্রান্ত। ওই পরিবারের আরও দু’জন তাদের সংস্পর্শে থাকার কারণে তারাও অসুস্থ্য হয়েছেন।