চার্লি ( Charlie )—যে রুপকথা জীবনের

32
Print Friendly, PDF & Email

চার্লি। যে জীবন ফড়িঙের, দোয়েলের— মানুষের সাথে তার হয়না’কো দেখা জীবনানন্দের এই লাইনটাকেই যেন ভিজ্যুয়াল করে তোলা হয়েছে এই সিনেমায়। তবে আফসোসের সুরে নয়, পথ দেখানোর বাশিওয়ালা হয়ে। আপনি মুভিপ্রেমী হন বা না হন, আপনি জীবন নিয়ে সন্তুষ্ট হন বা হতাশ, যেটাই হোক- চার্লি, আপনার জন্য মাস্ট ওয়াচ। জীবনের এই রংধনু তো আপনিও পেতে পারতেন- অন্তত এই উপলব্ধির স্বার্থে।

চার্লি ২০১৫ সালে মুক্তিপ্রাপ্ত মালায়লাম সিনেমা। প্রধান চরিত্রে চার্লি তথা দুলকার সালমান করেছেন অ-সা-ধা-র-ণ অভিনয়। ঠিক যেন অভিনয় নয়, ওইটাই পৃথিবী। বিপরীত চরিত্রে পার্বতী তথা তেসা একজন আর্টিস্ট। জীবনে সব আছে তবু কি এক জীবন তিনি খুঁজে বেড়ান। পালিয়েছেন বিয়ের আসর থেকে। সেখান থেকে এক জ্বীনের সাথে পরিচয়। হ্যাঁ, জ্বীন। যাকে খুঁজতে হয় কেবল, পাওয়া যায় না। নাকি জীবন? খুঁজতে হবে আপনাকেই।

ডক্টর কানি, যিনি জীবনের শেষপ্রান্তে গিয়ে নতুন করে জীবনকে খুঁজে পান। হয়তো নিজে নিজেই নিজেকে অপমানিত করেন সারাক্ষণ, প্রত্যেকটা ভুল সিদ্ধান্তের প্রতিই এই সিনেমা যেন চপেটাঘাত। কিংবা বৃদ্ধাশ্রমের সেই যুবক সব বৃদ্ধগুলো যারা একদিন প্রেমিকার জন্য সাঁতরে গিয়েছিল সমুদ্র। সেই সব স্মৃতি তাদের বয়স বাড়তে দেয়নি। অথবা সেই রাতে ঢোকা চোর। ইচ্ছে করছে পুরোটাই বলে দিতে, কিন্তু তাতে এই লেখাটি স্পয়লার দোষে দুষ্ট হয়ে যাবে। তাই থামতে হচ্ছে।

কিছু মভি আছে আপনাকে সাময়িক আনন্দ দেবে। কিছু মুভি শেষ হবার পর আরও দু’তিন ঘন্টা রেশ রাখবে কিন্তু কিছু মুভি আপনি ভুলতেই পারবেন না। চার্লি তেমন এক মুভি। যেদিন মনে পড়বে সেদিন আবার চাঙা হবেন, ভেতরের প্রজাপতি আমাদের জাগতিক সময়কে কোথায় যেন নিয়ে যাবে।

সিনেমায় ব্যবহার করা গানগুলো শ্রুতিমধুর, মেডিটেশনের মতো শান্তিদায়ক, ফোক, কাওয়ালি গানগুলো দিয়েছে অন্য পরিবেশ। কম্পোজিশন, সিনেমাটোগ্রাফি, ডিরেকশন এক কথায় অনবদ্য। আর সিনেমার লেখক উন্নি আর তাকে তো সহজেই উঁচুমানের সাহিত্যিক বলা যায়।

নিউজবি রেটিংঃ ৮/১০