করোনা: বৈশ্বিক মৃত্যু ২৭ হাজার ছাড়ালো

13
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্কঃ
মৃতের সংখ্যা অব্যাহতগতিতে বাড়ার পেছনে মূল কারণ স্পেন ও ইতালির পরিস্থিতি। দেশদুটিতে গত ২৪ ঘণ্টায় এক হাজার ৬৮৮ জনের প্রাণহানি ঘটে। সংক্রমণ ছড়িয়েছে ক্যাথলিক খৃস্টানদের পবিত্র শহর ভ্যাটিক্যান সিটিতেও।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের তথ্যানুসারে (গতকাল) শুক্রবার নাগাদ যুক্তরাষ্ট্রে কোভিড-১৯ আক্রান্তের সংখ্যা এক লাখ ছাড়িয়েছে।

দেশটির পার্লামেন্টের নিম্নকক্ষ কংগ্রেসের এক জনপ্রতিনিধি মাইক কেলিও করোনা আক্রান্ত হয়েছেন। এনিয়ে মার্কিন প্রতিনিধি পরিষদের মোট পাঁচ আইনপ্রণেতা করোনা আক্রান্ত হলেন।

একইসঙ্গে চলমান বিশ্ব মহামারিতে একদিনে সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা যাওয়ার নতুন রেকর্ড দেখা গেছে ইতালিতে।

শুক্রবার দেশটির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ ৯১৯ জনের মৃত্যুর খবর নিশ্চিত করে। ফলে দেশটিতে মোট প্রাণহানির সংখ্যা উন্নীত হয় ৯ হাজার ৩১৪টিতে।

এই সংবাদ ইউরোপে করোনা নিয়ন্ত্রণের আশাকে হুমকির মুখে ফেলল। বিশেষ করে স্পেনের অবস্থাতেও উন্নতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে না। সেদেশে শুক্রবার নাগাদ আরও ৭৬৯ জনের প্রাণহানি ঘটে। ফলে মোট প্রাণহানি সংখ্যা চার হাজার ৮৫৮’তে উন্নীত হয়।

করোনার কবল থেকে মুক্তি পায়নি ক্যাথলিক খৃস্টানদের পবিত্র নগর রাষ্ট্র ভ্যাটিক্যান সিটি। গত শুক্রবার ভয়াটিক্যানের এক মুখপাত্র সেখানে প্রথম করোনা সংক্রমণের কথা নিশ্চিত করেন।

এনিয়ে আগামী রোববার ভিডিও সম্প্রচারের মাধ্যমে এক ভাষণ দেবেন পোপ ফ্রান্সিস। ভাইরাস প্রতিরোধের সতর্কতা হিসেবে ভ্যাটিক্যান প্রাসাদের জানালা থেকে ভাষণ দেওয়ার প্রথা ভাঙ্গছেন তিনি।

শেষ পর্যন্ত পাওয়া খবরে ফ্রান্সে ২৯৭ জনের প্রাণহানির কথা জানা যায়। এতে মোট প্রাণহানি দাঁড়ালো এক হাজার ৯৯৫টিতে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার মতে ইউরোপ সহ বাকি বিশ্বে মোট ২৭ হাজার ৩৬৫ করোনা আক্রান্ত রোগী প্রাণ হারিয়েছেন। আক্রান্ত হয়েছেন কমপক্ষে ৫ লাখ ৯৭ হাজার ২৬৭ জন মানুষ।