বান্দরবানের রিসোর্ট দিচ্ছে ফ্রি কোয়ারেন্টিন সেবা

16
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকাঃ
চলছে ভয়াবহ করোনাকাল। এই মুহুর্তে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ২৭ হাজার। সরকারি, বেসরকারি সমস্ত জায়গা থেকেই নেয়া হচ্ছে যতটুকু সম্ভব প্রতিরোধের উদ্যোগ। এমন সময়েই এগিয়ে এসেছে বান্দরবানের রিসোর্ট, হলিডে ইন। এখানে বিনামূল্যে পাওয়া যাবে কোয়ারেন্টাইন সুবিধা।

নগর যদি পোড়ে, তা দেবালয়ও এড়ায় না। প্রচলিত এবং সত্য এই কথাটা আমরা যত দ্রুত বুঝতে পারি ততই মঙ্গল। যারা অর্থে সামর্থ্যবান, ক্ষমতায় সামর্থ্যবান তাদের জন্য এটাই প্রকৃত সময় নিজের হৃদয় খুলে দেখানোর। দেখাতে পারেন এই বিশ্বের সমস্তই তুচ্ছ হয় কেবল আন্তরিকতা আর ভালোবাসার কাছে।

ইংরেজিতে বলি ‘ম্যান কাইন্ড’, বাংলাতে মানবিক মানুষ। তেমন পরিচয়ই দিলো বান্দরবানের হলিডে ইন রিসোর্ট। করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে এবং পর্যটক ও কর্মীদের সুরক্ষায় গত ১৯ মার্চ থেকে অস্থায়ীভাবে বন্ধ ছিল রিসোর্টটি। অতিথিশূন্য এই রিসোর্টটিতেই বিনামূল্যে হোম কোয়ারেন্টাইনের সুযোগ দেয়া হচ্ছে এবার। বান্দরবানের জেলা প্রশাসককে উদ্দেশ্য করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এই তথ্য প্রকাহ করে হলিডে ইন কর্তৃপক্ষ। স্থানীয় প্রশাসন চাইলে যে কাউকে হোম কোয়ারেন্টাইনে এখানে থাকতে দেয়া হবে।

হলিডে ইন-এর ফেসবুক বিবৃতি

হলিডে ইন রিসোর্টে অর্জুনতলা, চন্দ্রিমা, কেউক্রাডং, লেক লাভার্স সহ বিভিন্ন নামে প্রায় ১৩ টি কটেজ আছে। এগুলোতে ১৪ দিন অবস্থান করা যাবে। রুম সার্ভিস যেমন— বেডশিট, বালিশের কভার ইত্যাদি পরিবর্তনের প্রয়োজন হলে তা বিনামূল্যেই পাওয়া যাবে।

খাবারের ক্ষেত্রে কেবল বাজার খরচ দিলেই পাওয়া যাবে নিয়মিত খাবার। আপনি চাইলে নিজে রান্না করেও খেতে পারবেন। আর এই সমস্ত প্রক্রিয়াটিই বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা নির্দেশিত স্বাস্থ্যবিধি অনুসারে চলবে। কারও জন্য কোয়ারেন্টিন প্রযোজ্য কি না তা এ বিষয়ক জেলা কমিটির সুপারিশে নির্ধারিত হবে।

করোনাকালে বান্দরবানের হলিডে ইন রিসোর্টের এই উদ্যোগ নিঃসন্দেহে প্রশংসনীয়।এতে করে অন্যান্য প্রতিষ্ঠানগুলোও উদ্বুদ্ধ হবে বলে আশা করছেন সংশ্লিষ্টরা।