কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের বাসায় গিয়ে খোঁজ নিচ্ছে সেনাবাহিনী

14
Print Friendly, PDF & Email

অনলাইন নিউজ ডেস্ক:
দেশের বিভিন্ন জেলায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ এবং সামাজিক দূরত্ব ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা নিতে মাঠে নেমেছে সেনাবাহিনী। পুলিশের সমন্বয়ে গঠিত সশস্ত্র বাহিনী জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকেল থেকে মাঠে নেমেছে।

সকালে জেলা প্রশাসনের সঙ্গে সভা শেষে বিকেলে শহরের বিভিন্ন এলাকায় টহল দেয় সেনাবাহিনী। এ সময় হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের বাসায় গিয়ে সর্বশেষ তথ্য সংগ্রহ করেন সেনাবাহিনীর সদস্যরা। বিদেশ থেকে দেশে ফিরে কেউ বাইরে ঘোরাফেরা করছেন কি-না কিংবা কোথাও জনসমাগম হচ্ছে কি-না তা দেখছে সেনাবাহিনী।

প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট, সেনাবাহিনী ও পুলিশের সমন্বয়ে গঠিত সশস্ত্র বাহিনীর দুটি টিম বিকেলে রাঙামাটি শহরের পাথরঘাটা, পাবলিক হেলথ, কলেজ গেট, ভেদভেদীসহ শহরের বিভিন্ন এলাকায় হোম কোয়ারেন্টিনে থাকা ব্যক্তিদের খোঁজখবর নেয়। বিদেশফেরত ব্যক্তি ও তার পরিবার ঠিকঠাক কোয়ারেন্টিনে আছে কি-না বাইরে ঘুরছে তার খোঁজ নিচ্ছে সেনাবাহিনী।

এছাড়া শহরের বিভিন্ন জায়গায় সচেতনতামূলক কার্যক্রমেও অংশ নেয় করোনা প্রতিরোধে গঠিত জেলা সমন্বয় টিম। এ সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মাইকিংও করা হয়।

রাঙ্গামাটি জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট পল্লব হোম দাশ বলেন, জনগণকে সচেতন করার জন্য সেনাবাহিনীকে সঙ্গে নিয়ে আমাদের অভিযান শুরু হয়েছে। সরকারের পরবর্তী নির্দেশ না আসা পর্যন্ত এ অভিযান চলবে। আমাদের মূল উদ্দেশ্য প্রাবাসীদের হোম কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করা। সেই সঙ্গে সাধারণ মানুষকে জানিয়ে দেয়া- জরুরি কাজ ছাড়া কেউ ঘরের বাইরে বের হবেন না, স্বেচ্ছায় ঘরে থাকুন।

এদিকে, রাঙ্গামাটির বিভিন্ন এলাকায় করোনা ভাইরাসের বিষয়ে জনসচেতনতা বাড়ানোরর লক্ষ্যে মাস্ক বিতরণ করেছে সেনাবাহিনীর রাঙ্গামাটি রিজিয়ন। সোমবার (২৩ মার্চ) বিনামূল্যে এই মাস্ক বিতরণ করা হয়।

রাঙ্গামাটি রিজিয়নের মেজর মহিউদ্দিন জানান, সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাঙামাটি অঞ্চলের কলেজ গেট, বনরূপা বাজার, রিজার্ভ বাজার ও তবলছড়ি এলাকায় করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে জনসচেতনতা তৈরি করতে প্রায় দুই হাজার মাস্ক বিতরণ করা হয়। সেনাবাহিনীর এই প্রচেষ্টা অব্যাহত থাকবে।

এছাড়াও ভবিষ্যতে যেকোনও দুর্যোগ মোকাবিলায় জনগণের পাশে তারা থাকবেন বলেও তিনি জানান।

প্রসঙ্গত, দেশে নতুন করে আরও ছয়জনের মধ্যে নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়েছে; আরও একজনের মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করেছে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউট- আইইডিসিআর। নতুন ছয়জনকে নিয়ে বাংলাদেশে মোট ৩৯ জনের মধ্যে এ ভাইরাসের সংক্রমণ ধরা পড়লো, যাদের মধ্যে মোট পাঁচজন ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন।

ইনস্টিটিউটের পরিচালক অধ্যাপক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা মঙ্গলবার এক ভার্চুয়াল ব্রিফিংয়ে নভেল করোনা ভাইরাস মহামারীর সর্বশেষ পরিস্থিতি তুলে ধরেন।