আইনি ব্যাখ্যা না রেখেই খালেদার সাজা স্থগিত: দুদকের আইনজী

14
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
আইনি ব্যাখ্যা না রেখেই বেগম খালেদা জিয়ার সাজা স্থগিত করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী খুরশিদ আলম খান।

মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকেলে সাংবাদিকদের একথা বলেন তিনি। এ সময় তিনি জানান, দুদকের মামলায় আইনি ব্যাখ্যা না রেখেই খালেদা জিয়াকে প্রশাসনিক ক্ষমতা বলে ৬ মাসের জন্য সাজা স্থগিত করা হয়েছে।

এরআগে প্রধামন্ত্রীর নির্দেশেই বেগম খালেদা জিয়ার ৬ মাসের মুক্তির জন্য সুপারিশ করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) বিকেল সাড়ে তিনটার দিকে গুলশানের নিজ বাসভবনে সংক্ষিপ্ত সংবাদ সম্মেলনে এ কথা জানান তিনি।

আনিসুল হক বলেন, ‘প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ ব্যাপারে নির্দেশ দিয়েছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ হচ্ছে আইনি প্রক্রিয়ায় দুই শর্তে দণ্ডাদেশ স্থগিত রেখে তাকে মুক্তি দেওয়া হোক। সরকার মানবিক কারণে সদয় হয়ে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ফৌজদারি কার্যবিধির ৪০১ ধারা (উপধারা-১) অনুযায়ী এটা আইনি প্রক্রিয়ায় করা হয়েছে।’

তিনি আরো বলেন, ‘বিদেশে গমন না করার শর্তে প্রধানমন্ত্রীর আদেশে খালেদা জিয়ার দণ্ডাদেশ ছয় মাসের জন্য স্থগিত করা হয়েছে। এ সময় তাকে বাসায় থেকে চিকিৎসা গ্রহণ করতে হবে। বেগম খালেদা জিয়ার বয়স বিবেচনায় মানবিক কারণে সরকার সদয় হয়ে দণ্ডাদেশ স্থগিত রাখার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে।’

আনিসুল হক বলেন, ‘হাসপাতালে গিয়েও তিনি চিকিৎসা নিতে পারবেন। তবে তাকে ঢাকার নিজ বাসায় থেকেই চিকিৎসা নিতে হবে এবং এই সময় তিনি বিদেশ যেতে পারবেন না। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় তাকে মুক্তি দিলেই এ আদেশ কার্যকর হবে।’

প্রসঙ্গত, জিয়া অরফানেজ ট্রাস্ট ও জিয়া চ্যারিটেবল ট্রাস্ট দুর্নীতির মামলায় ২০১৮ সালের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাগারে রয়েছেন বেগম খালেদা জিয়া। বর্তমানে তিনি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) প্রিজন সেলে চিকিৎসাধীন।