প্রয়োজনে মাদারীপুর-শিবচর-ফরিদপুর লকডাউন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী

17
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
দেশের যেসব এলাকায় করোনা পরিস্থিতি খারাপ হবে সেসব এলাকা লকডাউন করা হবে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।

বৃহস্পতিবার বিকেলে সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলন করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

এসময় তিনি বলেন, বিশ্বের যেসব দেশ করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে বিশেষ করে চীন, ওই দেশগুলোতে পরিস্থিতি স্বাভাবিক করা হয়েছে লকডাউনের মাধ্যমে। আমাদের দেশেও যে সমস্ত এলাকায় করোনা পরিস্থিতি খারাপ হবে ওই সব এলাকা লকডাউন করা হবে।

জাহিদ মালেক বলেন মাদারীপুর, শরীয়তপুর, ফরিদপুরে করোনা আক্রান্ত রোগী পাওয়া যাচ্ছে।প্রয়োজনে ওই এলাকা লকডাউন করা হবে। কোয়ারেন্টাইন বা চিকিৎসার কাজে সেনাবাহিনীকে ইজতেমা মাঠ প্রস্তুত করার জন্য দেয়া হয়েছে।

তিনি বলেন করোনার সংক্রমণ ঠেকাতে সামাজিক, রাজনৈতিক, ধর্মীয় সব ধরনের অনুষ্ঠান সীমিত করতে হবে। নির্বাচনী মিছিল-সমাবেশ বন্ধে ইসিকে বলা হয়েছে। এছাড়া কারও জ্বর থাকলে গণপরিবহনে ভ্রমণ করা যাবে না।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী আরও বলেন: দেশে ৫ হাজার মানুষকে করোনা সন্দেহে পরীক্ষা করা হয়েছে। দুয়েকদিনের মধ্যে ফলাফল পাওয়া যাবে।

এর আগে দেশে করোনা ভাইরাসে নতুন করে তিনজন আক্রান্ত হয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক আবুল কালাম আজাদ।

এ নিয়ে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১৭-তে দাঁড়ালো।

আবুল কালাম আজাদ জানান: নতুন করে আক্রান্ত তিনজন একই পরিবারের সদস্য। তাদের মধ্যে একজন নারী ও দু’জন পুরুষ। আক্রান্ত ওই নারীর বয়স ২২ বছর। পুরুষ দু’জনের বয়স যথাক্রমে ৬৫ ও ৩২ বছর। আক্রান্তদের পরিবারের একজন ইটালি ফেরত।

তিনি আরও জানান: এখন পর্যন্ত করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা একজনই।

করোনা ভাইরাস নিয়ে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা ইনস্টিটিউটের (আইইডিসিআর) খোলা হটলাইনে এখন পর্যন্ত মোট ২ লাখ ২৮ হাজার ৮৩৮ জন সেবা নিয়েছেন বলেও জানান তিনি।

বিশ্বব্যাপী এ ভাইরাসে এখন পর্যন্ত ২ লাখ ১৯ হাজার ৩৮৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন বলে চিকিৎসকরা নিশ্চিত করেছেন। এরমধ্যে ৮ হাজার ৯৭০ জন মারা গেছেন এবং সুস্থ হয়েছেন ৮৫ হাজার ৭৪৯ জন।