করোনাভাইরাস: বিয়ে বন্ধের পর কোয়ারেন্টিনে বর, জরিমানা

45
প্রতীকী ছবি
Print Friendly, PDF & Email

মৌলভীবাজার থেকে করসপন্ডেন্ট:
করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধে গ্রীসফেরত এক তরুণের বিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন। এ সময় কনেপক্ষকে ৫০ হাজার ও কমিউনিটি সেন্টারকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। এছাড়া বরকে কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার (১৯ মার্চ) দুপুরে মৌলভীবাজার শহরের কোর্ট রোডের পৌর কমিউনিটি সেন্টারে এ ঘটনা ঘটে।

সূত্র জানায়, সদর উপজেলার ইসলামপুর ইউনিয়নের এক তরুণ গত ৮ মার্চ গ্রীস থেকে দেশে ফেরেন। এরই মধ্যে হোম কোয়ারেন্টিন না মেনে তিনি আজ দুপুরে বিয়ে করতে বরযাত্রীসহ পৌর কমিউনিটি সেন্টারে আসেন। খবর পেয়ে সেখানে হাজির হয় জেলা প্রশাসন।

এদিকে, জরিমানার পাশাপাশি ভ্রাম্যমাণ আদালত কমিউনিটি সেন্টারের ম্যানেজারকে সতর্ক করে পরবর্তী নির্দেশনার আগ পর্যন্ত তার প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন।

নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নেছার উদ্দীন জানান, খবর পেয়ে ভ্রাম্যমাণ আদালত পৌর কমিউনিটি সেন্টারে গিয়ে জরিমানার পাশাপাশি বিয়ে বন্ধ করে দেয়।

প্রসঙ্গত, করোনা ভাইরাস (কোভিড-১৯) শরীরে সুপ্ত থাকলে তা যাতে সহজে চিহ্নিত করা যায় এবং এই ভাইরাস যাতে ছড়িয়ে না পড়ে সে কারণে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে দেশে ফেরা ব্যক্তিদের নিজ নিজ বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। তবে সরকারি নির্দেশ অমান্য করে বিভিন্নজনের ঘুরে বেড়ানোর অভিযোগও পাওয়া গেছে। ১৫ জেলায় ইতোমধ্যেই ৩৪ জনকে অর্থদণ্ড দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসন।

বিদেশফেরত নাগরিকদের ‘হোম কোয়ারেন্টাইন (নিজ গৃহে সার্বক্ষণিক অবস্থান)’ নিশ্চিত করতে সিটি করপোরেশন, পৌরসভা, জেলা, উপজেলা ও ইউনিয়ন পর্যায়ে সকল স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানসমূহে কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় সরকার বিভাগ।