করোনা রোগী মারা গেছেন, এবার চিকিৎসক আক্রান্ত ভারতে

17
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
ভারতের গত সপ্তাহে করোনো ভাইরাস আক্রান্ত হয়ে এক ব্যক্তি মারা যান। ওই ব্যক্তির চিকিৎসায় নিয়োজিত ছিলেন যে চিকিৎসক তিনি করোনো ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। তার কোভিড-১৯-এর পরীক্ষা পজিটিভ হয়েছে। দেশটির কর্ণাটক রাজ্যের কলাবুরগিতে এ ঘটনা ঘটেছে।

আজ মঙ্গলবার ভারতীয় কর্মকর্তারা এ কথা জানিয়েছেন।

কলাবুরাগির জেলা প্রশাসক শরত বি জানিয়েছেন, ৬৩ বছর বয়সী এই চিকিৎসককে তার পরিবারের সদস্যদের সাথে বাড়িতেই কোয়ারেন্টাইন করে রাখা হয়েছে। তার জন্য বাড়িতেই আইসোলেসন ওয়ার্ড তৈরী করা হয়েছে।

ব্রিটেনে ভ্রমণ করা ২০ বছর বয়সী এক নারীর দেহে করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে। এ নিয়ে কর্ণাটকে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ১০।

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী বি শ্রীরামুলু টুইট করে বলেছেন, কর্ণাটকে আমরা আরও দুজনের দেহে কোভিড-১৯ ভাইরাসের সংক্রমণ ঘটেছে বলে নিশ্চিত হয়েছি।

এই ১০ জনের মধ্যে ৭৬ বছর বয়সী কলাবুরগীর এক লোকও রয়েছেন। তিনি গত সপ্তাহে মারা গেছেন।

এর আগে, সোমবার লন্ডন হয়ে যুক্তরাষ্ট্রে ফিরে আসা ৩২ বছর বয়সী এক ব্যক্তির দেহে করোনা ভাইরাস ধরা পড়েছে। তিনি কর্ণাটকের অষ্টম আক্রান্ত ব্যক্তি।

তিনি বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে ছিলেন। এখন তাকে আইসোলেসন ওয়ার্ডে ভর্তি করা হয়েছে।

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, তিনি ২ মার্চ লন্ডন হয়ে যুক্তরাষ্ট্র থেকে ভারতে ফিরে এসেছেন।
সূত্র: ইকোনোমিক টাইমস