করোনা ভাইরাসের কারনে কুয়েতে আজানের ভাষায় পরিবর্তন

20
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
নভেল করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে কুয়েতে মসজিদে আজানের ভাষায় পরিবর্তন আনা হয়েছে। আজানের সময়, ‘নামাজের জন্য এসো’ পরিবর্তন করে ‘ঘরে বসে নামাজ আদায়ের’ কথা বলা হচ্ছে। 

প্রতিবেদনে বলা হয়, কুয়েতে এরইমধ্যে শতাধিক ব্যক্তি নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই ভাইরাস ছড়িয়ে পড়া ঠেকাতে দেশটির আওকাফ অ্যান্ড ইসলামিক অ্যাফেয়ার্স মন্ত্রণালয় শুক্রবারের জুমার নামাজসহ সব ধরনের জামাতে নামাজ আদায় স্থগিত করেছে।

দেশটির মুয়াজ্জিনরা আযান-এ কিছুটা পরিবর্তন এনেছেন। তারা ‘হাইয়া আলাস সালাহ’ (নামাজের জন্য এসো) এর জায়গায় ‘আস সালাতু ফি বুয়ুতিকুম’ (ঘরে নামাজ আদায় কর) উচ্চারণ করছেন। জামাতে নামাজ আদায়ে নিষেধাজ্ঞা থাকলেও মুয়াজ্জিনরা মসজিদের মাইকে আজান বন্ধ করবেন না জানিয়ে তারা আজানের ভাষায় এই পরিবর্তন এনেছেন।

কুয়েত ছাড়াও করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে ইরাক ও ইরানও জামাতে নামাজ আদায় নিষিদ্ধ করেছে। সৌদি আরবে জামাতে নামাজ পড়া চললেও অনেক সতর্কমূলক ব্যবস্থা মেনে চলতে হচ্ছে।

সূত্রঃ গালফ নিউজ