উহানে করোনা ছড়িয়েছে মার্কিন সেনারা, দাবি চীনের

20
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
মার্কিন সেনারা চীনে করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে বলে দাবি করেছেন চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ঊর্ধ্বতন এক কর্মকর্তা। যদিও নিজের দাবির পক্ষে কোনো প্রমাণ তিনি পেশ করেননি। আর এর ফলে মারণঘাতি এই ভাইরাস নিয়ে দুই দেশের মধ্যে কথার লড়াই বাড়তি মাত্রা পেল।

বৃহস্পতিবার রাতে টুইট করে মার্কিন সেনাদের বিরুদ্ধে এমন অভিযোগ তোলেন চীনা পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের মুখপাত্র ঝাও লিজিয়ান।

টুইট বার্তায় তিনি আরও বলেন, যুক্তরাষ্ট্র নিজেদের করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের নিয়ে স্বচ্ছতা দেখাতে ব্যর্থ হয়েছে। তারা এই সংক্রান্ত তথ্য গোপন করছে।

তিনি বলেন, যুক্তরাষ্ট্রে জিরো পেশেন্ট কে? কতজন আক্রান্ত এবং কোন কোন হাসপাতালে চিকিৎসা হচ্ছে? সেই হাসপাতালগুলোর নাম কী? এসব বিষয় গোপন করছে যুক্তরাষ্ট্র।

চীনের রাষ্ট্রীয় সংবাদমাধ্যম গ্লোবাল টাইমস বৃহস্পতিবার এক খবরে বলেছে, যুক্তরাষ্ট্রের সেন্টার ফর ডিজিস কন্ট্রোল এন্ড প্রিভেনশন (সিডিসি)-এর পরিচালক রবার্ট রেডফিল্ড স্বীকার করেছেন যে, কিছু ফ্লু রোগীর সম্ভবত ভুল চিকিৎসা করা হয়েছিলো যারা আসলে করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ছিলেন।

তার স্বীকারোক্তির জের ধরেই চীনের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে অন্যতম মুখপত্র ঝাও লিজিয়ান দাবি করেন, মার্কিন সেনারাই সম্ভবত উহানে কভিড-১৯ ছড়িয়েছে, যারা পরে পুরো চীনে ছড়িয়ে পড়ে।

এর আগে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এক প্রশ্নের জবাব দিতে গিয়ে বলেন, করোনা ভাইরাস চীনে শুরু হয়েছে এবং পরে অন্য জায়গায় ছড়িয়ে পড়েছে। মূলত ট্রাম্পের এই বক্তব্যের জেরেই ঝাও লিজিয়ানের এই টুইট বলে ধারণা করা হচ্ছে।

ঝাও তার টুইটে এই বলেছেন, ‘কভিড-১৯ যেভাবে মহামারী আকার ধারণ করেছে তাতে একে অপরকে দোষারোপ কিংবা আক্রমণ করার চেয়ে বিশ্বের সবার উচিৎ একযোগে এটির বিরুদ্ধে যুদ্ধ করা।’
সূত্র: ইন্ডিয়া টুডে।