‘ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নেব’

18
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
আজ ২ মার্চ, জাতীয় ভোটার দিবস। দেশে দ্বিতীয়বারের মতো দিবসটি উদযাপিত হচ্ছে। এবার দিবসটির প্রতিপাদ্য ‘ভোটার হয়ে ভোট দেব, দেশ গড়ায় অংশ নেব’।

সোমবার সকাল সাড়ে ৮টার দিকে জাতীয় সংসদ ভবনের সামনে পায়রা ও বেলুন উড়িয়ে দিবসটির উদ্বোধন করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা।

উদ্বোধন শেষে র‌্যালি বের করা হয়। র‌্যালিটি সংসদ ভবনের সামনে থেকে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের সামনে গিয়ে শেষ হয়।

এতে উপস্থিত ছিলেন নির্বাচন কমিশনার মাহবুব তালুকদার, মো. রফিকুল ইসলাম, অবসরপ্রাপ্ত ব্রিগেডিয়ার জেনারেল শাহাদাত হোসেন চৌধুরী, কবিতা খানম, নির্বাচন কমিশনের জ্যেষ্ঠ সচিব মো. আলমগীরসহ সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারী।

এদিকে মুজিববর্ষ উপলক্ষে নতুন ভোটারদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি) সরবরাহ শুরু করবে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। তবে সীমিত আকারে এই কার্যক্রম শুরু করা হবে। ধীরে ধীরে তা বাড়ানো হবে বলে জানিয়েছে ইসি।

এ ছাড়া মুজিব বর্ষ উপলক্ষে জেলা পর্যায়ে পরিচয়পত্র সেবা সহজ করার জন্যও মাঠ পর্যায়ে নির্দেশনা দিয়েছে সংস্থাটি।

এরআগে এক বিজ্ঞপ্তিতে ইসি জানায়, ২ মার্চ ‘জাতীয় ভোটার দিবস’ উদযাপন করা হবে। এ উপলক্ষে সারাদেশে ব্যাপক অনুষ্ঠানসূচির আয়োজন করা হয়েছে। ওই দিন চূড়ান্ত ভোটার তালিকাও প্রকাশ করা হবে।

দৈনন্দন জীবনে নাগরিক সেবা সহজতর করার লক্ষ্যে নির্বাচন কমিশন ২০১৯ সালের ভোটার তালিকা হালনাগাদ কার্যক্রমে নিবন্ধিত ১৮ বছরের কম বয়স্ক নাগরিকগণকে স্বল্প সময়ে জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদানের সিদ্ধান্ত নিয়েছে এবং এ বিষয়ে আইটি শাখা প্রয়োজনীয় কার্যক্রম গ্রহণ করেছে। নতুন নিবন্ধিত নাগরিকগণের পেপার লেমিনেটেড জাতীয় পরিচয়পত্র মুদ্রণের জন্য জেলা নির্বাচন অফসে প্রয়োজনীয় লিংক প্রদান করা হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, ওই লিংকের মাধ্যমে জাতীয় ভোটার দিবস উপলক্ষে এবারের হালনাগাদ ভোটার তালিকা হতে যে চূড়ান্ত তালিকা প্রকাশ করা হবে তা হতে প্রত্যেক উপজেলার জন্য কমপক্ষে ১০ জন ভোটারের পেপার লেমিনেটেড জাতীয় পরিচয়পত্র জেলা হতে মুদ্রণ করে উপজেলায় বিতরণ করতে হবে। মুদ্রিত জাতীয় পরিচয়পত্রসমূহ প্রতিটি উপজেলায় ভোটার দিবসের র্যালিতে অথবা আলোচনা অনুষ্ঠানে নতুন ভোটারদের মাঝে বিতরণ করার জন্য অনুরোধ করা যেতে পারে। পরবর্তীতে হালনাগাদে অন্তর্ভুক্ত সকল ভোটারকে স্মার্ট কার্ড মুদ্রণ করে সরবরাহ করা হবে।

জানা যায়, এবার ৫৩ লাখ ৬৬ হাজার ১০৫ জনের তথ্য ইসির সার্ভার যোগ হবে। এর মধ্যে পুরুষ ৩৫ লাখ ৮২ হাজার ১৬৩ জন, নারী ৩১ লাখ ৭৫ হাজার ৮২৫ জন এবং হিজড়া ৩৫৩ জন।

বর্তমানে ইসির সার্ভারে ১০ কোটি ৪২ লাখের মতো নাগরিকের তথ্য আছে।

উল্লেখ্য, গতবছর মুক্তিযুদ্ধের সূচনার জন্য গৌরবময় মার্চ মাসের ১ তারিখকে জাতীয় ভোটার দিবস উদযাপনের জন্য বেছে নেওয়া হয়েছিল। এ বছর তারিখটি পরিবর্তন করা হয়েছে।