রাত-বিরাতে পাপিয়ার বাসাতেও মধুচক্র!

16
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
পাঁচ তারকা হোটেলের বাইরে শামীমা নুর পাপিয়া ওরফে পিউ’র ফার্মগেটের বাসায়ও নিয়মিত আমোদ-ফূর্তির আসর বসত। সেখানে তরুণী ও ভিআইপিরা আসতেন বলে তথ্য দিয়েছেন পাপিয়া নিজে। রিমান্ডে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদের পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর কর্মকর্তাদের এমন তথ্য দিয়েছেন তিনি। একটি জাতীয় দৈনিকে প্রকাশিত প্রতিবেদনে এসব তথ্য প্রকাশ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে বলা হয়, পাঁচ তারকা হোটেলের বাইরেও নিজের ফার্মগেটের বাসায়ও আমোদ-ফূর্তির আসর বসাতেন পাপিয়া। রাত বিরাতে নিয়ে আসতেন তরুণীদের। সেখানে আসতেন ভিআইপিরাও। তিন বছর ধরে ফার্মগেটের ইন্দিরা রোডের বাসাটিতে থাকতেন তিনি। তবে মাসে ছয় সাত দিনের বেশি অবস্থান করতেন না এ বাসায়। তেজগাঁও কলেজ সংলগ্ন একটি বহুতল ভবনে মাসে প্রায় অর্ধলক্ষাধিক টাকা ভাড়া দিয়ে তৃতীয় তলার ফ্ল্যাট রেখেছিলেন পাপিয়া।

প্রতিবেদন করতে গিয়ে পাপিয়ার ইন্দিরা রোডের ২৮ নম্বর বাড়িতে গিয়ে প্রতিবেশী ও কেয়াটেকারদের সঙ্গে কথা বলেন প্রতিবেদক। নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক কেয়ারটেকার ওই প্রতিবেদককে জানান, প্রায়ই রাত বারোটা একটার দিকে সাত-আট জন নারী নিয়ে বাসায় আসতেন পাপিয়া ম্যাডাম। কোনো দিন নিজের গাড়ি নিয়েই আসতেন, আবার কোনো দিন অন্য কেউ এসে নামিয়ে দিয়ে যেতেন। যেদিন রাতে আসতেন সেই দিন রাতে থেকে পরের দিন দুপরে চলে যেতেন। মাঝেমধ্যে সঙ্গে অনেক বড় বড় স্যারও নিয়ে আসতেন। তারা বেশি সময় থাকতেন না। এক-দুই ঘণ্টা থেকে চলে যেতেন। ম্যাডাম তাদের নিচের পার্কিং পর্যন্ত এগিয়ে দিতেন।

অস্ত্র, মাদক ও জাল টাকার পৃথক তিনটি মামলায় যুব মহিলা লীগের নরসিংদী জেলার বহিষ্কৃত সাধারণ সম্পাদক শামীমা নুর পাপিয়াকে গত সোমবার ১৫ দিনের রিমান্ডে নিয়েছে পুলিশ। তার স্বামী মফিজুর রহমান সুমনও ১৫ দিনের রিমান্ডে রয়েছেন।

এছাড়াও তাদের সহযোগী সাব্বির খন্দকার ও শেখ তায়্যিবকে পাঁচ দিনের রিমান্ডে নেয়া হয়েছে। গত ২২ ফেব্রুয়ারি তাদের গ্রেফতার করে র‌্যাব।