কোনো মুসলিম নাগরিকত্ব হারাবে না: অমিত শাহ

22
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল ডেস্ক:
নাগরিকত্ব আইন পাশ হয়েছে গত বছরের শেষে। এখনও সেই ইস্যুতে জ্বলছে গোটা ভারত। আর সম্প্রতি দিল্লির ঘটনায় পরিষ্কারভাবেই ফুটে উঠেছে সিএএ ও এনআরসি ইস্যুতে কতটা নাজুক পরিস্থিতি সেখানকার।

কেন নাগরিকত্ব আইনে বাদ পড়লেন মুসলিমরা, তা নিয়ে ক্ষোভ তৈরি হয়েছে ভারতসহ বিশ্বের বিভিন্ন মহলে। তবে এবার সেই ইস্যুতে এবার সুর পাল্টে কথা বললেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ।

শুক্রবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) পশ্চিমবঙ্গের ভুবনেশ্বেরে আয়োজিত সভায় বক্তব্য প্রদানকালে শাহ জানালেন যে, কোনও মুসলিমদের নাগরিকত্ব চলে যাবে না এই আইনে। বিরোধীরা মিথ্যা কথা বলছেন বলেও উল্লেখ করেন তিনি। এই সময় কলকাতাভিত্তিক সংবাদ সংস্থা কলকাতা ২৪x৭ প্রকাশিত এক প্রতিবেদনে বলা হয়, শুক্রবার কলকাতার ভুবনেশ্বরে এক জনসভায় যোগ দেন অমিত শাহ। সেখানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘বিরোধীরা নাগরিকত্ব বিল নিয়ে মিথ্যা প্রচার করছে। আমি আবারও বলছি, এই আইনের জন্য কেউ নাগরিকত্ব হারাবে না। একজন মুসলিমেরও নাগরিকত্ব যাবে না।’

তিনি বলেন, বিরোধীরা যতই মিথ্যা প্রচারের চেষ্টা করুন, বিজেপি সবসময় সত্যি কথা বলবে।

শুক্রবার ইস্টার্ন জোনাল কাউন্সিলের ২৪ তম বৈঠক উপলক্ষ্যে ভুবনেশ্বরে এসেছিলেন বাংলা, বিহারের দুই মুখ্যমন্ত্রী। ছিলেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। অতিথিদের জন্য দুপুরের খাওয়ার আয়োজন করা হয়েছিলো নবীন পট্টনায়েকের বাসভবন “নবীন নিবাস”-এ।

জাতীয় নিরাপত্তা এবং সীমান্তের পরিস্থিতি নিয়ে পশ্চিমবঙ্গ, ঝাড়খন্ড, বিহার, ওডিশা এবং সিকিমের মুখ্যমন্ত্রীদের নিয়ে প্রতিবছর এই বৈঠক হয়। গতবছর এই বৈঠক হয়েছিল নবান্নে। সেই বৈঠকে দেশের স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হিসেবে উপস্থিত ছিলেন তৎকালীন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং। এবার এই বৈঠক হচ্ছে ভুবনেশ্বরে।

বিগত সময়গুলোতে নিজ মুখে বারংবার ভারতে এনআরসি কার্যকর করার মধ্যদিয়ে অন্য সকল সম্প্রদায়ের মানুষের নাগরিকত্ব সুরক্ষার আশ্বাস দিলেও মুসলিমদের দেশ ছাড়া করার কথা একাধিকবার উচ্চারণ করেছেন অমিত শাহ-সহ দলের আরো অনেক নেতারাই। তবে ভুবেনেশ্বরে অমিত শাহ শুনিয়ে গেলেন ভিন্ন সুর।