কোভিড ছড়ালো ৫০ দেশে

24
Print Friendly, PDF & Email

ইন্টারন্যাশনাল নিউজ ডেস্ক:
চীনের বাইরে অন্যান্য দেশগুলোতে দ্রুত ছড়িয়ে পড়ছে প্রাণঘাতী কোভিড-১৯ (করোনা ভাইরাস)। পাকিস্তান, বলকান রাষ্ট্র নর্থ মেসিডোনিয়া ছাড়াও ইউরোপের গ্রিসসহ বেশ কয়েকটি দেশে প্রথমবারের মতো আক্রান্তের খবর পাওয়া গেছে। বাদ যায়নি আফ্রিকাও। প্রায় অর্ধশত দেশে কোভিড ছড়িয়ে পড়ায় ভাইরাস প্রতিরোধে ভ্রমণ নিষেধাজ্ঞার কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিশেষজ্ঞরা।

বিশ্বজুড়ে কভিড-১৯-এ মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২ হাজার ৮শ ৭ জনে দাঁড়িয়েছে। আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়েছে ৮২ হাজার।

চীনে নতুন আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা কমেছে।

দেশটির জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন জানায়, বুধবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) নতুন করে ৪৩৩ জন ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এই রোগে বুধবার ২৯ জনের মৃত্যু হয়েছে। আক্রান্ত ও মারা যাওয়া বেশিরভাগই চীনের হুবেই প্রদেশের মানুষ।

এর আগে সোমবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) এই প্রদেশে মোট ৫২ জনের মৃত্যু হয় এ ভাইরাসে।

চীনের বাইরে দ্রুত ভাইরাস সংক্রমণ ছড়াচ্ছে বলে উদ্বেগ প্রকাশ করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা। বিশ্বব্যাপী প্রায় ৪১টি দেশের ৮২ হাজারেরও বেশি মানুষ এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

ইরানে ভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে নতুন করে ৩ জনের প্রাণহানি হয়েছে। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়ালো ২২ জনে। আক্রান্ত ১৩৯ জন।

ইরান সরকার জানায়, কোনও শহর বা মানুষকে পৃথক করার কোনও পরিকল্পনা তাদের নেই।

ইরান থেকে কাতার ও কুয়েতের নাগরিকদের ফিরিয়ে আনার নির্দেশ দিয়েছে দেশ দু’টির কর্তৃপক্ষ। প্রাণঘাতী এই ভাইরাসের নেতিবাচক প্রভাব ফেলেছে পবিত্র নগরী নাজাফে।

ইরাকি কর্তৃপক্ষ জানায়, হজরত ইমাম আলী (রা.) এর মাজার বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

দক্ষিণ কোরিয়াতেও নতুন করে আরেকজনের মৃত্যু হয়েছে। সেখানে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ১২ জন। আক্রান্তের সংখ্যা ১ হাজার ২০০ ছাড়িয়েছে।

প্রথমবারের মতো দু’জন আক্রান্তের কথা নিশ্চিত করেছে পাকিস্তান।

কোভিডে প্রথম শনাক্তের বিষয়টি নিশ্চিত করেছে ব্রাজিলও। এটাই লাতিন আমেরিকার দেশগুলোর মধ্যে প্রথম আক্রান্তের ঘটনা।

সম্প্রতি ইউরোপের মধ্যে ইতালিতেই এ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব সবচেয়ে মারাত্মক রূপ নিয়েছে। দেশটিতে তিন শতাধিক লোক কোভিড-১৯-এ আক্রান্ত হয়েছেন এবং তাদের মধ্যে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্তের সংখ্যা ২৫ শতাংশ বেড়েছে।

কোভিডে সবচেয়ে বেশি প্রাদুর্ভাব ঘটেছে দেশের উত্তরাঞ্চলীয় শিল্প এলাকা লম্বার্ডিতে।

ইতালির স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠক শেষে ইইউ হেলথ কমিশনার স্টেলা কাইরিয়াকিডস বলেছেন, পরিস্থিতি উদ্বেগজনক কিন্তু আমাদের ভীত হওয়া যাবে না।

প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে যথাযথ ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে বলে আশ্বস্ত করেছে রোম। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে বহু স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়, সিনেমা হলসহ জনসমাগমের স্থান। ভাইরাস মোকাবেলায় সন্ধ্যা ৬টার পর সব নাইটক্লাব বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে ইতালি সরকার।

কোভিড আতঙ্কে পর্যটক শূন্য হয়ে পড়েছে দেশটির বেশ কিছু শহর।

ইতালি ছাড়া অস্ট্রিয়া, রোমানিয়াসহ ইউরোপ ও এর আশেপাশের বেশ কয়েকটি দেশে নতুন আক্রান্ত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে। তবে এখনও সীমান্ত বন্ধ করেনি ইউরোপ।

জাপানের ডায়মন্ড প্রিন্সেস জাহাজে থাকা ১১৯ ভারতীয় নাগরিককে একটি বিশেষ বিমানে করে বৃহস্পতিবার দেশে ফিরিয়ে এনেছে দিল্লি। ভারতের বিশেষ বিশেষ বিমানে আটকে পড়া ২৩ বাংলাদেশিকেও দিল্লিতে এনেছে ভারত।

কোভিড বিস্তার রোধে ওমরাহ হজ ভিসা সাময়িক স্থগিত করেছে সৌদি আরব। মক্কায় কাবা শরীফ ও মদিনায় অবস্থিত মসজিদে নববীও বিদেশিদের জন্য সাময়িক বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (২৭ ফেব্রুয়ারি) এক বিবৃতিতে এ তথ্য জানায় দেশটির পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়।

এখন পর্যন্ত সিঙ্গাপুরে ৯৩, যুক্তরাষ্ট্রে ৬০, থাইল্যান্ডে ৪০, বাহরাইনে ৩৩, অস্ট্রেলিয়ায় ২৩, মালয়েশিয়ায় ২২, ফ্রান্সে ১৮, জার্মানিতে ১৮, কুয়েতে ১৮, ভিয়েতনামে ১৬, যুক্তরাজ্যে ১৩, ম্যাকাউতে ১০, কানাডায় ১০, স্পেনে ৮, ইরাকে ৫, ক্রোয়েশিয়ায় ৩, ভারতে ৩, অস্ট্রেলিয়ায় ২, ফিনল্যান্ডে ২, ইসরায়েলে ২, ওমানে ২, রাশিয়ায় ২, সুইডেনে ২ এবং আফগানিস্তানে একজন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে।

হংকংয়ে এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৯১ এবং মারা গেছে ২ জন। তাইওয়ানে ৩১ জন এই ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছে এবং মৃত্যু হয়েছে একজনের। ফিলিপাইনে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ এবং মৃত্যু ১, আলজেরিয়ায় আক্রান্ত ১, বেলজিয়ামে ১, কম্বোডিয়ায় ১, মিসরে ১, জর্জিয়ায় ১, গ্রিসে ১, লেবাননে ১, নেপালে ১, উত্তর মেসিডোনিয়ায় ১, নরওয়েতে ১, রোমানিয়ায় ১, শ্রীলঙ্কায় ১ এবং সুইজারল্যান্ডে একজন এবং ক্রোয়েশিয়ায় একজনের শরীরে এই ভাইরাসে শনাক্ত হয়েছে।