পাপিয়ার ফাইল রেডি: দুদক কমিশনার মোজ্জামেল হক খান

23
সাভারে বাংলাদেশ লোকপ্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে এক সেমিনার শেষে সাংবাদিকদের সঙ্গে কথা বলেন দুদক কমিশনার ড. মো. মোজ্জামেল হক খান।
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
শুধু যুব মহিলা লীগের বহিষ্কৃত নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া নয়, যারাই দেশের মধ্যে অবৈধ সম্পদের মালিক হয়েছে, প্রত্যেককে ক্রমান্বয়ে আইনের আওতায় এনে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কমিশনার ড. মো. মোজাম্মেল হক খান। সোমবার বিকেলে ঢাকার সাভারের বাংলাদেশ লোকপ্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ২১তম পাবলিক পলিসি ও ম্যানেজমেন্ট কোর্সের সেমিনারে অংশ নিয়ে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এ কথা বলেন।

দুদক কমিশনার ড. মোজাম্মেল হক খান বলেন, ‘পাপিয়ার বিরুদ্ধে দুদক ব্যবস্থা নেওয়া শুরু করেছে। ফাইল রেডি হয়েছে, দৃশ্যমান হতে আরো দু-একদিন সময় লাগবে।’

মোজাম্মেল হক খান বলেন, ‘মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দুর্নীতির বিরুদ্ধে জিরো টলারেন্স অবস্থান নিয়েছেন। সেটি শুরু হয়েছে নির্বাচনের আগে এবং এখনো চলমান রয়েছে। তবে দুর্নীতি দমন কমিশন তার যে দায়িত্ব, সেখান থেকেই দুর্নীতির বিরুদ্ধে দুদক অবস্থান নিয়েছে। এই অভিযান অব্যাহত থাকবে। দুর্নীতি যতদিন থাকবে, ততদিন আমাদের কাজ করতে হবে।’

বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান আবদুল হাই বাচ্চুর গ্রেপ্তারের বিষয়ে জানতে চাওয়া হলে দুদক কমিশনার বলেন, ‘এটা আইনি প্রক্রিয়া, যখন আমরা মনে করব তাঁকে গ্রেপ্তারের প্রয়োজন, তখন তাঁকে আইনের আওতায় এনে গ্রেপ্তার করা হবে। তবে বেসিক ব্যাংকের অন্যান্য কর্মকর্তা যারা টাকা-পয়সার অনিয়ম করেছে, সে ব্যাপারে মামলা চলমান আছে। কখন কাকে গ্রেপ্তার করা হবে, এটি আইনের ব্যাপার, আদালতের সিদ্ধান্তের ব্যাপার। এ মুহূর্তে এটা বলা যাবে না যে কী ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

১২ দিনব্যাপী এ সেমিনারে বিভিন্ন মন্ত্রণালয়ের ২৩ জন অতিরিক্ত সচিব অংশ নেন। দুদক কমিশনারের সঙ্গে এ সময় বাংলাদেশ লোকপ্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের রেক্টর রকিব হোসেনসহ আরো অনেকে উপস্থিত ছিলেন।