আর্চারকে বর্ণবাদী মন্তব্য করা দর্শক নিষিদ্ধ

6
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস ডেস্ক রিপোর্টঃ
ইংল্যান্ড এবং নিউজিল্যান্ডের মধ্যকার প্রথম টেস্টে বর্ণবাদী মন্তব্যের শিকার হন জফরা আর্চার। ইংল্যান্ডের এই পেসারকে বর্ণবাদী মন্তব্য করা দর্শককে নিজেদের সব স্টেডিয়াম থেকে দুই বছরের জন্য নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট (এনজেসি)।

আগামী দুই বছর নিউজিল্যান্ডের ঘরোয়া এবং আন্তর্জাতিক ম্যাচে থাকতে পারবেন না ২৮ বছর বয়সী অকল্যান্ডে জন্ম নেয়া সেই দর্শক। দেশটির ক্রিকেট বোর্ডের প্রধান নির্বাহী ডেভিড হোয়াইট অবশ্য আগেই জানান, আর্চারকে উদ্দেশ্য করে বাজে মন্তব্য করা সেই দর্শকের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবেন তারা।

কিছুদিন আগে মিডিয়াকে তিনি বলেছিলেন, ‘আমরা যদি ওই ব্যক্তিকে খুঁজে বের করতে পারি, সবকিছুর আগে তাকে পুলিশের কাছে হস্তান্তর করব। তাকে ভিডিও ফুটেজের মাধ্যমে খুঁজে বের করব।

আমার ব্যক্তিগত মতামত হচ্ছে তাকে নিউজিল্যান্ডের সবগুলো মাঠ থেকে নিষিদ্ধ ঘোষণা করা। আমাদের এজন্য একটি প্রক্রিয়ার মধ্যে যেতে হবে। আপাতত এটাই আমাদের পরিকল্পনা।’

ইংল্যান্ডের ইনিংসের সময় স্যাম কারানের সঙ্গে ব্যাটিং শেষে সাজঘরে ফেরার মুহূর্তে আর্চারকে নিয়ে বর্ণবাদী মন্তব্য করেন সেই দর্শক। স্বাভাবিকভাবেই এমন মন্তব্য মেনে নিতে পারেননি ২৪ বছর বয়সী এই পেসার।

তারই বহিঃপ্রকাশ আর্চার দেখান টুইটারে। একটি বার্তায় তিনি লিখেন, ‘নিজ দলকে বাঁচানোর জন্য ব্যাটিং করার সময় বর্ণবাদী আচরণ শোনা খুবই বিরক্তিকর ছিলো। দর্শকরা সত্যিই দারুণ ছিলো, শুধুমাত্র সেই ব্যক্তি বাদে। আমাদের বার্মি আর্মি বরাবরের মতোই দুর্দান্ত ছিলো।’

আর্চারের এই টুইটের পর নড়েচড়ে বসে নিউজিল্যান্ড ক্রিকেট বোর্ড। তারকা এই পেসারের কাছে প্রথমে টুইটারে দুঃখ প্রকাশ করে তারা। এরপর আনুষ্ঠানিকভাবে এক বিবৃতিতে আর্চারের কাছে ক্ষমা চায় এনজেসি।