তাপসকে ছাড় দিল না জাতীয় পার্টি

19
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
সিটি নির্বাচনে দক্ষিণে আওয়ামী লীগ প্রার্থী শেখ ফজলে নূর তাপসকে ছাড় দিল না জাতীয় পার্টি। মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিনে আওয়ামী লীগ নেতাদের সঙ্গে এক ঘরোয়া বৈঠকের পর সিদ্ধান্ত আসে ভোটেই থাকছেন জাপা প্রার্থী সাইফুদ্দিন মিলন।

এদিকে, ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মেয়র পদে ৭ জন, ৭৫টি সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৩৩৫ জন ও ২৫টি সংরক্ষিত কাউন্সিলর পদে ৮২ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য চূড়ান্ত হয়েছেন।
মনোনয়ন প্রত্যাহারের নির্দিষ্ট সময় পর এ তথ্য জানান দক্ষিণের রিটার্নিং কর্মকর্তা।

কাউন্সিলর পদে ১৪৫ জন প্রার্থী মনোনয়ন প্রত্যাহার করে নিলেও মেয়র পদে জাতীয় পার্টিসহ কেউই সরে দাঁড়াননি। দলের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে কাউন্সিলর প্রার্থীরা দলীয় প্রার্থীর হয়ে কাজ করবেন বলে জানান।

ঢাকা দক্ষিণ ও উত্তর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন সকাল থেকেই সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তাদের রুমে ভিড় করেন মনোনয়ন প্রত্যাহার করতে আসা প্রার্থীরা। মনোনয়ন প্রত্যাহারকারী বেশীর ভাগ প্রার্থীই ছিল আওয়ামী লীগ ও বিএনপির বিদ্রোহী প্রার্থী।

তবে শেষ পর্যন্ত দলের সিদ্ধান্ত মেনে নিয়েই তারা নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন বলে জানান মনোনয়ন প্রত্যাহার করা বেশীর ভাগ প্রার্থী। বিদ্রোহী প্রার্থীদের মনোনয়ন প্রত্যাহার নিশ্চিত করতেও এদিন অনেক দলীয় সমর্থন পাওয়া প্রার্থীদের রিটার্নিং কর্মকর্তার কার্যালয়ে দেখা যায়।

দলের সমর্থন না পেয়ে মনোনয়ন প্রত্যাহার করে কেউ কেউ আবার দলের সিদ্ধান্তের ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

পরে বিকেল ৫টার পর রিটার্নিং কর্মকর্তারা জানান, মনোনয়ন প্রত্যাহার শেষে যেসব প্রার্থী নির্বাচনী প্রতিদ্বন্দ্বিতায় টিকে রইলো তাদের সংখ্যা।

তবে আওয়ামী লীগ প্রার্থীকে সমর্থন জানিয়ে সারাদিন প্রত্যাহারের গুঞ্জন শোনা গেলেও শেষ পর্যন্ত মেয়র পদ থেকে সরে দাঁড়াননি জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী সাইফউদ্দিন আহমেদ মিলন।

শুক্রবার (১০ জানুয়ারি) প্রতীক বরাদ্দের মধ্য দিয়ে শুরু হবে সিটি করপোরেশন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক প্রচার-প্রচারণা।