বুড়িগঙ্গায় বাল্কহেড ডুবে নিহত ৪ শ্রমিক

11
Print Friendly, PDF & Email

নারায়ণগঞ্জ থেকে করসপন্ডেন্ট:
নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লায় বুড়িগঙ্গা নদীতে বালুবাহী একটি বাল্কহেড ডুবে ৪ শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে। শুক্রবার (৩ জানুয়ারি) ভোরে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ খেয়াঘাট এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে এ ঘটনা ঘটে। পরে খবর পেয়ে নারায়ণগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের সদস্যরা ডুবে যাওয়া বাল্কহেডসহ ৪ জনের মরহেদ উদ্ধার করে। এছাড়া বাল্কহেডের মাস্টারসহ দু’জনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়েছে।

নিহতরা হলেন, ঝালকাঠির নলছিটির কান্দেবপুর এলাকার তৈয়ব আলীর ছেলে লুৎফর রহমান (৩৯), পিরোজপুরের কাউখালীর চাষেরকাঠি এলাকার আব্দুর রব তালুকদারের ছেলে মোস্তফা (৫৫), পিরোজপুরের বটবাড়ির ছোট আরজি এলাকার রাশেদ হাওলাদারের ছেলে বাবু (১৮) ও বরিশালের বানারিপাড়ার ইলুহার এলাকার মহিবুল্লাহ (৬০)।

ফতুল্লার বিসিক শিল্পনগরীর ফায়ার সার্ভিসের সিনিয়র স্টেশন অফিসার মোহাম্মদ কাজল মিয়া বাল্কহেডের মাস্টারের বরাত দিয়ে জানান, বৃহস্পতিবার রাত আড়াইটার দিকে ফতুল্লার ধর্মগঞ্জ খেয়াঘাট এলাকায় বুড়িগঙ্গা নদীতে একটি বাল্কহেড নোঙর করে পরিষ্কার করা হয়। পরিষ্কার করার সময় হয়তো কোনো স্থানে ছিদ্র হয়ে যায়। পরে শ্রমিকরা ঘুমিয়ে পড়লে বাল্কহেডের ভেতর পানি প্রবেশ করে ডুবে যায়। এতে বাল্কহেডের ভেতরে থাকা ৬ জনের মধ্যে ৪ জন মারা যান। আর বাল্কহেডের মাস্টারসহ দুইজনকে জীবিত উদ্ধার করা হয়।

তিনি আরও জানান, নিহত সবাই বাল্কহেডের শ্রমিক। পরে পাগলা নৌ-পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে কেরানীগঞ্জ থানায় নিয়ে যায়। স্বজনরা গেলে তাদের কাছে মরদেহ হস্তান্তর করবে বলে জানান তিনি।