বকেয়া পরিশোধের আশ্বাসে আন্দোলন প্রত্যাহার পাটকল শ্রমিকদের

8
Print Friendly, PDF & Email

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী জনিয়েছেন, ১৫ দিনের মধ্যে মজুরি কমিশনের পে-স্লিপের মাধ্যমে বকেয়াসহ বেতনভাতা পরিশোধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

তিনি বলেন, বকেয়া বেতন এককালীন নাকি পর্যায়ক্রমে পরিশোধ করা হবে, সেই সিদ্ধান্ত পরে নেয়া হবে।

বৃহস্পতিবার (০২ জানুয়ারি) দুপুরে রাজধানীর ফার্মগেটে জেডিপিসি কার্যালয়ে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে বৈঠকে বসেছিলেন শ্রমিক নেতারা। দীর্ঘ সময় বৈঠক শেষ রাতে এ সিদ্ধান্ত জানান বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী।

এ সময় সিবিএ ও ননসিবিএ সংগ্রাম পরিষদের নেতা সর্দার আবদুল হামিদ বলেন, অতীতে মজুরি কমিশন নিয়ে বহুবার প্রতারিত হয়েছি। ১৬ তারিখে অবশ্যই পে-স্লিপ দিতে হবে সরকারকে।

প্রধানমন্ত্রীর আশ্বাসে অনশনরত শ্রমিকদের আন্দোলন প্রত্যাহার করা হলো উল্লেখ করে তিনি বলেন, শনিবার থেকেই কাজে ফিরবে শ্রমিকরা।

এর আগে, বৃহস্পতিবার বিকেল ৫টায় দেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পাটকল শ্রমিকদের চলমান অসন্তোষ ও আন্দোলন নিরসনে শ্রমিক নেতাদের সঙ্গে বৈঠকে বসে বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়। বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী বীরপ্রতীকের নেতৃত্বে বৈঠকে সরকারপক্ষে আরও উপস্থিত ছিলেন শ্রম ও কর্মসংস্থান বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান, বস্ত্র ও পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, শ্রম ও কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সচিব কে এম আলী আজমসহ অন্যরা।

উল্লেখ্য, গত ২৬ ডিসেম্বরের বৈঠকে মজুরি কমিশন বাস্তবায়নের বিষয়ে কোনো সুরাহা না হওয়ায় ২৯ ডিসেম্বর থেকে ১১ দফা দাবিতে ২য় দফা অনশন শুরু করেন দেশের পাটকল শ্রমিকরা।