ছাত্রলীগের পুনর্মিলনীতে আমন্ত্রণ পাচ্ছেন না শোভন-রব্বানী

8
Print Friendly, PDF & Email

স্টাফ করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
ছাত্রলীগের প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পাচ্ছেন না বহিস্কৃত সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন এবং সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী।

৪ জানুয়ারি (শনিবার) ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এই প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী ও পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

ইতোমধ্যেই অনুষ্ঠানের অতিথিদের আমন্ত্রণপত্র বিতরণ করছে ছাত্রলীগ। তবে দুর্নীতির সঙ্গে যুক্ত থাকার দায়ে এই আমন্ত্রণপত্র পাচ্ছেন না শোভন ও রব্বানী।

ছাত্রলীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় বলেন, আমন্ত্রণ না দেয়ার বিষয়ে দলের উপর থেকে নির্দেশনা আছে। এ কারণে এই মুহূর্তে আপাতত তারা দাওয়াত পাচ্ছেন না।

শোভন ও রব্বানী বিরুদ্ধে অর্থের বিনিময়ে মাদকসেবী, মাদক ব্যবসায়ী, চাকরিজীবী, শিবির ও ছাত্রদলের নেতাদের কমিটিতে স্থান করে দেওয়ার অভিযোগ ওঠে। পাশাপাশি জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ফারজানা ইসলাম অভিযোগ করেন, বিশ্ববিদ্যালয়ের উন্নয়ন প্রকল্পের কাজ যেসব ঠিকাদারি প্রতিষ্ঠান পেয়েছে তাদের কাছ থেকে বরাদ্দের ৪ থেকে ৬ শতাংশ নিয়ে ছাত্রলীগকে দেয়ার দাবিও করেছিলেন শোভন ও রব্বানী। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করে তিনি এ অভিযোগ জানান।

গত বছরের ১৪ সেপ্টেম্বরে ছাত্রলীগের সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়া হয়। তাদের পরিবর্তে ভারপ্রাপ্ত সভাপতি হিসেবে সংগঠনের জ্যেষ্ঠ সহ-সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয় এবং ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক হয়েছেন জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

ছাত্রলীগের পদ থেকে বাদ পড়লেও ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদে (ডাকসু) নির্বাচিত জিএস হিসেবে এখনও দায়িত্ব পালন করছেন গোলাম রাব্বানী।