শিক্ষা ও সম্পদে এগিয়ে তাবিথ, ঋণ বেশি আতিকের

27
Print Friendly, PDF & Email

ঋত্বিক তারিক, ঢাকা:
ঢাকা উত্তর সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে রিটার্নিং কর্মকর্তাদের কাছে মনোনয়নপত্রের সঙ্গে দাখিল করা প্রার্থীদের হলফনামা থেকে জানা গেছে, কৃষি, ব্যবসা, বাড়ি বা অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া, মৎস্য চাষ ও ব্যাংক সুদ থেকে আওয়ামী লীগের মেয়র প্রার্থী আতিকুল ইসলামের বার্ষিক আয় ১ কোটি ২৯ লাখ ৬৮ হাজার টাকা।

অন্যদিকে, বিএনপির মেয়র প্রার্থী তাবিথ আউয়াল ৪ কোটি ১২ লাখ ৭৩ হাজার টাকা বার্ষিক আয় দেখিয়েছেন। আয়ের উৎস হিসেবে কৃষি, বাড়ি-দোকানসহ অন্যান্য ভাড়া, ব্যবসা, শেয়ার/সঞ্চয়পত্র/ব্যাংক থেকে লভ্যাংশ, চাকরি, অন্যান্য খাত উল্লেখ করেছেন।

শিক্ষায় আতিকুল ইসলাম বিকম এবং তাবিথ আউয়াল এমএসসি। এছাড়া আতিকুল ইসলামের আইএফআইসি ব্যাংকে নিজস্ব ঋণ আছে ৯৮ লাখ ৮৯ হাজার টাকা। আর ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের নামে রয়েছে ৫৯১ কোটি ৬ লাখ টাকার ঋণ। এ ঋণের মধ্যে আইএফআইসি ব্যাংকে ফান্ডেড ১৮৬ কোটি ৬২ লাখ টাকা ও নন-ফান্ডেড ২৪৪ কোটি ৬৪ লাখ টাকা ঋণ। ইস্টার্ন ব্যাংকে ফান্ডেড ৪৭ কোটি ২৯ লাখ টাকা ও ১৩ কোটি ৯ লাখ টাকা নন-ফান্ডেড এবং শাহজালাল ইসলামী ব্যাংকে ২৬ কোটি ১৫ লাখ টাকা ফান্ডেড ও ৭৩ কোটি ২৫ লাখ টাকা নন-ফান্ডেড টাকা ঋণ তার।

অন্যদিকে, বিভিন্ন ব্যাংক থেকে তাবিথ আউয়ালের প্রতিষ্ঠানগুলোর নামে ঋণ নেয়া আছে ৩০২ কোটি ৪৫ লাখ টাকা।

স্থাবর সম্পত্তি: আতিকুল ইসলামের স্থাবর সম্পদের মূল্যমান ১৩ কোটি ৯৭ লাখ ৯২ হাজার টাকা। তাবিথ আউয়ালের স্থাবর সম্পদ হিসেবে রয়েছে ৪ দশমিক ২৪ একর কৃষি জমি, ১৬ দশমিক ৪৮ একর অকৃষি জমি, দশমিক ৫৬ একর অন্যান্য জমি। ৯২৪ ও ১ হাজার ৪৩ বর্গফুট আয়তনের দুটি অ্যাপার্টমেন্টও রয়েছে তার।

অস্থাবর সম্পত্তি: আতিকুল ইসলামের অস্থাবর সম্পদ ৪ কোটি ৮৬ লাখ ৬৯ হাজার টাকা। তাবিথ আউয়ালের অস্থাবর সম্পদের পরিমাণ ৪৫ কোটি ৬০ লাখ ৮ হাজার টাকা।

মামলা: আতিকুল ইসলাম এবং তাবিথ আউয়ালের নামে বর্তমানে কোনো মামলা নেই। অতীতেও কোনো মামলা ছিল না এ দুই মেয়র প্রার্থীর নামে।