‘রাজাকারদের নয়, এটা দালাল আইনে মামলা হওয়া আসামির তালিকা’

15

সিনিয়র করসপন্ডেন্ট, ঢাকা:
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেছেন, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রীর প্রকাশিত তালিকা রাজাকারদের নয়, এটি ১৯৭২ থেকে ১৯৭৪ সালে দালাল আইনে মামলা হওয়া আসামিদের তালিকা। এ তালিকা থেকে ৯৯৬ জনের নাম বাদ দেয়া হলেও মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় পুরো তালিকাই রাজাকারের তালিকা হিসেবে প্রকাশ করেছে।

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) বিকালে সচিবালয়ে মন্ত্রণালয়ের নিজ কক্ষে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল এসব কথা বলেন।

এ সময় মন্ত্রণালয়ের জননিরাপত্তা বিভাগের সিনিয়র সচিব মোহাম্মদ মোস্তফা কামাল উদ্দীন উপস্থিত ছিলেন।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, বিষয়টিতে আমি একজন মন্ত্রী হিসেবে আহত হয়েছি। এটা দঃখজনক। তবে মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় যে দালাল আইনে মামলা হওয়া আসামিদের তালিকা রাজাকারদের তালিকা হিসেবে প্রকাশ করবে তা জানানো হয়নি বলে দাবি করেন মন্ত্রী।

আসাদুজ্জামান খান কামাল বলেন, মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয় থেকে আমাদের কাছে ১৯৭২ থেকে ৭৪ সালে দালাল আইনে মামলা হওয়া আসামিদের নামের তালিকা চেয়েছিল। আমরা সেই তালিকা পাঠিয়েছিলাম। সে সময় দেখা গেছে শত্রুতাবশত একজন আর একজনের বিরুদ্ধে দালাল আইনে মামলা করেছিল। সে কারণে তালিকা থেকে ৯৯৬ জনের নাম বাদ দিয়ে নোট দেয়া হয়।

মন্ত্রী বলেন, কোন মন্ত্রণালয় কি দায়িত্ব পালন করেছে, তালিকা প্রকাশে কতটুকু দায়িত্বশীল ছিলেন, সে বিষয়ে কোন মন্তব্য করা আমার ঠিক নয়। তবে আমাদের মন্ত্রণালয়ের করনিক কোন ভুল থাকলে তার তদন্ত করা হবে।

স্পর্শকাতর বিষয়ে দায়িত্বশীলতার ব্যর্থতার দায় মাথায় নিয়ে মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রীর পদত্যাগ করা উচিৎ কি না এমন প্রশ্নের জবাবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, উনি (মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী) একজন সিনিয়র মন্ত্রী। ওনার বিষয়ে আমার মন্তব্য করা কি ঠিক? মুক্তিযোদ্ধা মন্ত্রী ভালো একটি কাজ করতে চেয়েছিলেন। প্রকাশিত তালিকার ১০,৭৮৯ জনের তালিকা থেকে ৯৯৬ জনের নাম যে বাদ দেয়া হয়েছিল, সেটা প্রকাশিত না হলে আজ এই বিতর্কের সৃষ্টি হতো না।

তিনি স্পষ্ট করে বলেন, স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে মুক্তিযোদ্ধা বা রাজাকারদের কোনো তালিকা নেই। তালিকা করার দায়িত্ব মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রণালয়ের। এটা তারাই করছে বা করবে। তবে হ্যা, আমাদেরও কোন ভুল হয়েছে কি না, তা তদন্ত করে বলতে পারবো।