আমি জানি বল্লার চাকে হাত দিয়েছি: মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী

29

মানিকগঞ্জ থেকে করসপন্ডেন্ট:
মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক বলেছেন, ‘আমি জানি বল্লার চাকে হাত দিয়েছি। রাজাকার, আলবদর, আলশামসদের তালিকা আমি প্রকাশ করেছি। এ কারণেই একটা বিশেষ শ্রেণি ক্ষিপ্ত হয়ে আছে। বিএনপির সেক্রেটারি সাহেব কালকে বলেছেন কী দরকার ছিল ৪৮ বছর পরে সেই সব কথা বলার। কারণ তাদের আঁতে ঘা লাগে।’

বুধবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে মানিকগঞ্জ বিজয় মেলা মাঠে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মন্ত্রী এসব কথা বলেন।

আ ক ম মোজাম্মেল হক আরও বলেন, তারা (বিএনপি) বলছে ষড়যন্ত্র করে তাদের নাম লেখা হয়েছে। এসব তাদের মুখস্থ কথা। কোনো কিছু হলেই তারা ষড়যন্ত্রের কথা বলে। এসব বলে কোনো লাভ নেই উল্লেখ করে তিনি বলেন, তালিকা মাত্র শুরু হয়েছে। তবে ভুলবশত কিছু স্বাধীনতাকামী মুক্তিযোদ্ধার নাম এই তালিকায় চলে আসায় দুঃখ প্রকাশ করেন তিনি। যাচাই-বাছাই করে এসব নাম প্রত্যাহার করে নেয়া হবে। তবে রাজাকারদের নাম ঠিকই থাকবে। পরবর্তীতে আরো সতর্ক হয়ে পর্যাপ্ত যাচাই-বাছাই করে রাজাকারদের তালিকা প্রকাশ করা হবে বলেও জানান তিনি।

মানিকগঞ্জ জেলা মুক্তিযোদ্ধা সংসদের কমান্ডার মুক্তিযোদ্ধা তোবারক হোসেন লুডুর সভাপতিত্বে মুক্তিযোদ্ধা সমাবেশে এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন, মানিকগঞ্জ জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মুক্তিযোদ্ধা গোলাম মহীউদ্দীন, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আব্দুল মজিদ ফটো, মানিকগঞ্জ পৌরসভার মেয়র মুক্তিযোদ্ধা গাজী কামরুল হুদা সেলিম প্রমুখ।