মাওলানা আজহারির মাহফিলে রনি দাসের ইসলাম গ্রহন

11
Print Friendly, PDF & Email

ইসলামিক নিউজ ডেস্কঃ
মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারি বর্তমান সময়ের জনপ্রিয় বক্তা। তার মাহফিলে ঢল নামে অসংখ্য মানুষের। তার বয়ানে আকৃষ্ট হয়ে ভিন্নধর্মীরাও মাহফিলে আসেন। রনি দাসও এসেছিলেন তার ওয়াজ শুনতে।

চুয়াডাঙ্গার আলমডাঙ্গা উপজেলার পাঁচকমলাপুর দারুল উলুম হাফেজিয়া কওমিয়া মাদরাসার ১৩তম ঐতিহাসিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর সঙ্গে কালেমা পড়ে রনি কুমার দাস নামে এক যুবক ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। সোমবার (১৬ ডিসেম্বর) রাতে এ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।

স্বেচ্ছায় ধর্মান্তরিত হওয়া রনি কুমার দাস ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার পর তার নাম রাখা হয়েছে আব্দুর রহমান। তার বাড়ি চুয়াডাঙ্গা সদর উপজেলার সরোজগঞ্জ গ্রামে। তিনি চুয়াডাঙ্গা সরকারি কলেজের দর্শন বিভাগের ছাত্র। মাহফিলের আলোচনা শেষে পবিত্র কোরআন ও ইসলামের প্রতি আকৃষ্ট হয়ে রনি কুমার দাস হিন্দু ধর্ম ত্যাগ করে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

দারুল উলুম হাফেজিয়া কওমিয়া মাদরাসার ১৩তম ঐতিহাসিক তাফসিরুল কোরআন মাহফিলে প্রধান বক্তা মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীর বক্তব্য শুনতে লক্ষধিক ধর্মপ্রাণ মানুষের সমাগম ঘটে। রাত ৯টার সময় তিনি বক্তব্য শুরু করেন। টানা দুই ঘণ্টা পবিত্র কোরআন ও হাদিস থেকে গুরুত্বপূর্ণ আলোচনা করেন তিনি। তার বক্তব্যে ইসলামের প্রতি মুগ্ধ হয়ে মাহফিলে আসা রনি কুমার দাস ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন।

এর আগে মাদরাসার পরিচালক বাংলাদেশ বিজনেস চেম্বার অব সিঙ্গাপুরের প্রেসিডেন্ট ও সাহিদ গ্রুপের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব সাহিদুজ্জামান টরিক মাওলানা মিজানুর রহমান আজহারীকে মাহফিলের মঞ্চে নিয়ে এসে উপস্থিত সবার সঙ্গে পরিচয় করিয়ে দেন এবং সংক্ষিপ্ত বক্তব্য দেন। এরপর আইনশৃঙ্খলা সমুন্নত রাখতে সবার সহযোগিতা চেয়ে বক্তব্য দেন পুলিশ সুপার জাহিদুল ইসলাম। এ সময় জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক রিয়াজুল ইসলাম জোয়ার্দ্দার টোটন, দৈনিক সময়ের সমীকরণ-এর সম্পাদক ও প্রকাশক মো. শরীফুজ্জামান শরীফ, চুয়াডাঙ্গা পৌরসভার মেয়র ওবাইদুর রহমান চৌধুরী জিপু প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।