উইঘুর মুসলিমদের পাশে দাঁড়িয়ে আলোচনায় ওজিল

10
Print Friendly, PDF & Email

স্পোর্টস নিউজ ডেস্কঃ
জার্মানির সাবেক তারকা ফুটবলার মেসুত ওজিল সম্প্রতি উইঘুর মুসলিমদের প্রতি সমবেদনা জানিয়েছেন। চীনে উইঘুর মুসলমানদের প্রতি যে নির্যাতন হচ্ছে তা নিয়ে মুসলমান কেন চুপ করে আছে সেই প্রশ্নও করেছেন তিনি।

চীনের জিংজিয়াং প্রদেশে নির্যাতিত উইঘুর মুসলিমদের পক্ষ নিয়ে টুইটারে মন্তব্য লিখেছিলেন তুর্কি বংশোদ্ভূত জার্মানির সাবেক ফুটবলার মেসুত ওজিল। তিনি লিখেছেন, ‘মুসলিম ঘর থেকে পুরুষদের সেনাছাউনিতে বন্দি করে রেখে প্রতিটি পরিবারের অন্তত একটি মেয়েকে জোরজবরদস্তি করে বিয়ে দেওয়া হচ্ছে একজন কমিউনিস্ট পুরুষের সঙ্গে।’

এরপর উইঘুর মুসলিমদের জন্য দোয়া করে ওজিল লেখেন ‘হে মহান প্রতিপালক! পূর্ব তুর্কিস্তানে আমাদের উইঘুর ভাইদের সঙ্গে থাকো…।’

তার এমন মন্তব্যে তোলপাড় শুরু হয় পুরো চীনজুড়ে। চীনারা তার এই মন্তব্য কোনোভাবেই মেনে নিতে পারেনি। তারা ওজিলকে বয়কটের ডাক দিয়েছে। ওজিল খেলেন প্রিমিয়ার লিগের ক্লাব আর্সেনালে। চীনারা জানিয়ে দিয়েছে, তারা আর আর্সেনালকে সমর্থন করবে না। হয় লিভারপুল নয়তো ম্যানসিটিকে সমর্থন করবে তারা।

কিন্তু চীনারা যতই প্রতিবাদ করুক, নির্যাতিত উইঘুর মুসলিমদের পক্ষ নিয়ে সাহস করে কথা বলার কারণে মুসলিম দুনিয়ায় রীতিমত প্রশংসায় ভাসছেন মেসুত ওজিল। শুধু মুসলিম দুনিয়াতেই নয়, পৃথিবীর সকল শান্তিকামী মানুষই এসে দাঁড়িয়েছেন ওজিলের পাশে।

Arsenal

বিখ্যাত লেখক জন ক্রস তার এক টুইট বার্তায় লিখেছেন, ‘মেসুত ওজিল। অনেকগুলো মানুষের জন্য শক্তি এবং সাহসের প্রতীক হয়ে দাঁড়িয়েছেন। এবং মানুষ যদি এর আগে কি ঘটেছে সে সম্পর্কে নাও জানে, তারা এখন বিষয়টাতে নজর দেবে (ওজিলের মন্তব্যের কারণে)। একজন খেলোয়াড়কে তার জায়গা থেকে এই পরিবর্তনের জন্য ভূমিকা রাখতে দেখাটাও এক কথায় চমৎকার। #রেসপেক্ট।’

Mesut Ozil The power and guts to stand up for so many people. And if people didn’t know what’s happening before, they will look now. Fantastic to see a player using his platform for change #respect4,0127:41 PM – Dec 15, 2019Twitter Ads info and privacy1,230 people are talking about this

ডেভিড অর্নস্টেইন নামে এক বিখ্যাত ফুটবল সাংবাদিক টুইটারে লিখেছেন, ‘মেসুত ওজিল অর্থের ওপর নৈতিকতাকে স্থান দিয়েছেন। এবং তিনি জানতেন তার এই বক্তব্যে চীনারা কি ধরনের প্রতিক্রিয়া দেখাবে। তার ফ্যান ক্লাবের ৩০ হাজার নিবন্ধিত সদস্য ইতোমধ্যে সরে দাঁড়িয়েছেন। ইন্টারনেট দুনিয়ায় তার নামকে ধুয়ে ফেলা হচ্ছে। প্রিমিয়ার লিগ কর্তৃপক্ষ ইতিমধ্যেই আর্সেনালকে চিঠি লিখেছে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিতে। হয় পক্ষে দাঁড়াবে, নয়তো বিপক্ষে।’

David Ornstein@David_Ornstein

Mesut Ozil chose morals over money & was well aware how China would react. His fan club of 30,000 registered members has been closed, his name scrubbed from the internet. Premier League wrote to Arsenal offering support/advice if needed @TheAthleticUK #AFC https://theathletic.com/1461971/2019/12/16/ozils-criticism-of-china-caught-arsenal-unaware-but-he-knew-the-risks-of-speaking-out-as-he-is-wiped-from-their-internet/?source=shared-article …Ozil’s criticism of China caught Arsenal unaware but he knew…Ozil has suffered after he spoke out against China, while Arsenal have distanced themselves from the comments, in turn drawing criticism….theathletic.com7,8053:22 PM – Dec 16, 2019Twitter Ads info and privacy2,816 people are talking about this

তাসিন এম হালিম নামে একজন লিখেছেন, ‘তিনি (ওজিল) হলেন দুর্দান্ত এবং নিখুঁত একজন ব্যক্তিত্ব। সব সময়ই তিনি বিশ্বব্যাপি ইসলাম এবং মুসলিমের পক্ষে দাঁড়িয়েছেন। সারা বিশ্বের মুসলিমের পক্ষ থেকে অবশ্যই তিনি শুভ কামনা প্রাপ্য।’

TaSneeM_HaLiM@tasneem_hmada7

#MesutOzil
He an amazing perfect person and he always was supporting the Islam and the muslims around the world he really deserve all best8:51 PM – Dec 16, 2019Twitter Ads info and privacySee TaSneeM_HaLiM’s other Tweets

আবদুর রহমান ইসাম নামে একজন লিখেছেন, ‘তিনি শুধু একজন ফুটবলারই নন। সব ভালোবাসা এবং সব সমর্থন মেসুত ওজিলের জন্য।’ মোহাম্মদ মাগদি আহমেদ মিসর থেকে লিখেছেন, ‘মিসর থেকে মেসুত ওজিলের জন্য ভালোবাসা।’ জাল ব্রান্দান লিখেছেন, ‘হাই ব্রাদার মেসুত ওজিল, আমি ইন্দোনেশিয়া থেকে বলছি। #উই_স্ট্যান্ড_ফর_উইঘুর’।

খালিদ নামে একজন লিখেছেন, ‘থ্যাঙ্ক ইউ ওজিল। পূর্ব তুক্তিস্তানে আমাদের বোনদের পক্ষে দাঁড়ানোর জন্য। আমাদের পক্ষ থেকে অনেক অনেক ভালোবাসা এবং সমর্থন আপনার জন্য।’